বিশেষ সংবাদ -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
মার্কিন দূতাবাস ঘেরাওয়ে বাধা, শুক্রবার দেশব্যাপী বিক্ষোভ

জেরুজালেমকে দখলদার ইসরাইলের রাজধানী ঘোষণার প্রতিবাদে চরমোনাই পীরের দল ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের মার্কিন দূতাবাস ঘেরাও কর্মসূচিতে বাধা দিয়েছে পুলিশ। সোমবার দুপুর ১২টার দিকে দূতাবাস অভিমুখে দলটির বিক্ষোভ মিছিল রাজধানীর শান্তিনগর মোড়ে পৌঁছলে বাধা দেওয়া হয়।

পরে সেখানে রাখা ব্যারিকেডের উপরে দাঁড়িয়ে কর্মসূচির সমাপ্তি ঘোষণা করেন ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের আমির চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ মো. রেজাউল করিম।

তিনি বলেন, আমরা মার্কিন দূতাবাস ঘেরাওয়ের কর্মসূচি দিয়েছিলাম। কিন্তু, বায়তুল মোকাররম থেকে শান্তিনগর পর্যন্ত এলে পুলিশ আমাদের কর্মসূচিতে বাধা দেয়। সরকারের এ রকম বাধা কতদিন চলবে? জোয়ার আসলে কোনোভাবেই তা ঠেকানো যাবে না।

রেজাউল করিম প্রশ্ন রেখে বলেন, মুসলিমদের ওপর এই অত্যাচার কতদিন চলবে? জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী করার যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, তার প্রতিবাদে আগামী শুক্রবার দেশব্যাপী জেলায় জেলায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে সকালে রাজধানীর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের উত্তর গেটে বিক্ষোভ সমাবেশ করে ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলন। সমাবেশ শেষে মার্কিন দূতাবাস ঘেরাও করতে বিক্ষোভ মিছিল বের হয়।

মিছিলটি পল্টন মোড়, বিজয়নগর, কাকরাইল হয়ে শান্তিনগরে এলে পুলিশ কর্মসূচিতে বাধা দেয়।

উল্লেখ্য, গত ৬ ডিসেম্বর রাতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তার বক্তৃতায় জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানীর স্বীকৃতি দেন এবং তেল আবিব থেকে মার্কিন দূতাবাস সেখানে সরিয়ে নেওয়ার কথা জানান।

এ ঘোষণার পর ফিলিস্তিনসহ মুসলিম বিশ্বে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। গাজার প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস নতুন করে ইন্তিফাদার ডাক দেয়।

বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে ট্রাম্পের এ সিদ্ধান্তের নিন্দা জানানো হয়েছে এবং এই অঞ্চলের শান্তি নষ্টের গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে।

বিএনপি, জাতীয় পার্টি, ইসলামী দলগুলো ছাড়াও বিভিন্ন সংগঠন থেকে ট্রাম্পের এ সিদ্ধান্তে কড়া প্রতিবাদ জানানো হয়েছে।

মার্কিন দূতাবাস ঘেরাওয়ে বাধা, শুক্রবার দেশব্যাপী বিক্ষোভ
                                  

জেরুজালেমকে দখলদার ইসরাইলের রাজধানী ঘোষণার প্রতিবাদে চরমোনাই পীরের দল ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের মার্কিন দূতাবাস ঘেরাও কর্মসূচিতে বাধা দিয়েছে পুলিশ। সোমবার দুপুর ১২টার দিকে দূতাবাস অভিমুখে দলটির বিক্ষোভ মিছিল রাজধানীর শান্তিনগর মোড়ে পৌঁছলে বাধা দেওয়া হয়।

পরে সেখানে রাখা ব্যারিকেডের উপরে দাঁড়িয়ে কর্মসূচির সমাপ্তি ঘোষণা করেন ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের আমির চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ মো. রেজাউল করিম।

তিনি বলেন, আমরা মার্কিন দূতাবাস ঘেরাওয়ের কর্মসূচি দিয়েছিলাম। কিন্তু, বায়তুল মোকাররম থেকে শান্তিনগর পর্যন্ত এলে পুলিশ আমাদের কর্মসূচিতে বাধা দেয়। সরকারের এ রকম বাধা কতদিন চলবে? জোয়ার আসলে কোনোভাবেই তা ঠেকানো যাবে না।

রেজাউল করিম প্রশ্ন রেখে বলেন, মুসলিমদের ওপর এই অত্যাচার কতদিন চলবে? জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী করার যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, তার প্রতিবাদে আগামী শুক্রবার দেশব্যাপী জেলায় জেলায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে সকালে রাজধানীর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের উত্তর গেটে বিক্ষোভ সমাবেশ করে ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলন। সমাবেশ শেষে মার্কিন দূতাবাস ঘেরাও করতে বিক্ষোভ মিছিল বের হয়।

মিছিলটি পল্টন মোড়, বিজয়নগর, কাকরাইল হয়ে শান্তিনগরে এলে পুলিশ কর্মসূচিতে বাধা দেয়।

উল্লেখ্য, গত ৬ ডিসেম্বর রাতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তার বক্তৃতায় জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানীর স্বীকৃতি দেন এবং তেল আবিব থেকে মার্কিন দূতাবাস সেখানে সরিয়ে নেওয়ার কথা জানান।

এ ঘোষণার পর ফিলিস্তিনসহ মুসলিম বিশ্বে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। গাজার প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস নতুন করে ইন্তিফাদার ডাক দেয়।

বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে ট্রাম্পের এ সিদ্ধান্তের নিন্দা জানানো হয়েছে এবং এই অঞ্চলের শান্তি নষ্টের গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে।

বিএনপি, জাতীয় পার্টি, ইসলামী দলগুলো ছাড়াও বিভিন্ন সংগঠন থেকে ট্রাম্পের এ সিদ্ধান্তে কড়া প্রতিবাদ জানানো হয়েছে।

চাকরি হারাচ্ছেন শিক্ষক সমিতির সভাপতি ইনছান আলী
                                  

চাকরিচ্যুত হচ্ছেন সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও প্রধান শিক্ষক মো. ইনছান আলী। রোববার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোহরাব হোসেন এ সংক্রান্ত নথিতে স্বাক্ষর করেছেন বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

সূত্র জানান, চাকরি বিধি ১৯৭৯ লঙ্ঘন করে সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছেন ইনছান আলী। গত কয়েকমাস আগে তৎকালীন কর্মস্থল রাজধানীর ধানমন্ডি গভর্নমেন্ট বয়েজ হাই স্কুলে আয়োজিত বৈঠকে তিনি শিক্ষকদের উজ্জীবিত করতে সরকারবিরোধী বক্তব্য দেন। এ ছাড়া প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নাম ভাঙিয়ে চাঁদাবাজিসহ একাধিক গুরুতর অভিযোগ তার বিরুদ্ধে।

 

অভিযোগের প্রেক্ষিতে নভেম্বরের মাঝামাঝিতে মাউশি (মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর) মহাপরিচালক প্রফেসর ড. এস এম ওয়াহিদুজ্জামান স্বাক্ষরিত বদলি আদেশ জারি করে। আদেশে ধানমন্ডি গভর্নমেন্ট বয়েজ হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. ইনছান আলীকে বদলি করে রাজবাড়ী সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ে পাঠানো হয়।

জানা গেছে, ইনছান আলীর বিরুদ্ধে সব অভিযোগের প্রমাণ পেয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এরই আলোকেই তাকে চাকরিচ্যুত করতে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে। আগামী ১০ কর্মদিবসের মধ্যে নোটিশের জবাব দিতে বলা হয়েছে। জবাব সন্তোসজনক না হলে তাকে চাকরিচ্যুত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

তবে এ বিষয়ে ইনছান আলী জাগো নিউজকে বলেন, আমার প্রতিদ্বন্দ্বী কিছু ব্যক্তি ষড়যন্ত্র করে চাকরিচ্যুতের চেষ্টা করছেন। এ ছাড়া সব অভিযোগ মিথ্যা বলে দাবি করেন তিনি।

অবৈধ স্থাপনা : আনোয়ার খান মডার্ন হাসপাতালকে জরিমানা
                                  

অবৈধভাবে স্থাপনা গড়ে তোলায় আনোয়ার খান মডার্ন হাসপাতালকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করেছে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক)। রোববার ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে এ জরিমানা করা হয়।

রাজউক জানায়, ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার সময় ধানমন্ডির ৮ নম্বর রোডের ১৭ নম্বর হোল্ডিংয়ে অবস্থিত আনোয়ার খান মডার্ন হাসপাতাল ভবনের নকশা রাজউকের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দেখতে চান। তবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তা দেখাতে ব্যর্থ হয়।

এছাড়া কার পার্কিংয়ের জায়গায় ডাক্তারদের চেম্বার, অভ্যর্থনা কক্ষ, ফার্মেসি ও বিবিধ ব্যবহারের প্রমাণ পায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। এসব অনিয়মের কারণে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। একই সঙ্গে পার্কিংয়ের জায়গার অবৈধ স্থাপনা তিন দিনের মধ্যে সরিয়ে নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়।

অভিযানে একই রোডের ২১ নম্বর হোল্ডিংয়ে অবস্থিত ভবনের বেজমেন্টে (ভূ-তল) নকশা বহির্ভূত গার্ড রুম, টয়লেট ও অন্যান্য অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়।

অপরদিকে ৭ নম্বর রোডের ২০ নম্বর হোল্ডিংয়ের ‘এ আর এ সেন্টার’- এর ভূ তলে ভবনের নকশার ব্যতয় ঘটিয়ে কার-পার্কিংয়ের জায়গায় গড়ে তোলা অফিস কক্ষ, গোডাউন উচ্ছেদ করে রাজউকের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

উচ্ছেদ কার্যক্রমে রাজউকের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জেসমিন আক্তার, জোন-৫ (ধানমন্ডি, লালবাগ)- এর পরিচালক শাহ আলম চৌধুরী, অথরাইজড অফিসার আশীষ কুমার সাহা, সহকারী অথরাইজড অফিসার জোটন দেবনাথ, শুভঙ্কর সুষ্ময় রায় উপস্থিত ছিলেন।

ভিন্নমত দমনে মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে সিরিজ মামলা: বিএফইউজে
                                  

দৈনিক আমার দেশ এর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ও সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে সারাদেশে সিরিজ মামলা দায়েরের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন-বিএফইউজে ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন-ডিইউজে’র নেতৃবৃন্দ।

বিএফইউজে’র সভাপতি শওকত মাহমুদ ও মহাসচিব এম আবদুল্লাহ এবং ডিইউজে’র সভাপতি আবদুল হাই শিকদার ও সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম প্রধান এক বিবৃতিতে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ভিন্নমত দলন ও বাক স্বাধীনতা হরণের হীন উদ্দেশ্যে নতুন করে মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে একের পর এক মামলা দেয়া হচ্ছে।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, জাতীয় প্রেসক্লাবে একটি অনুষ্ঠানে দেয়া বক্তব্যের জেরে গত কয়েক দিনে মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন জেলায় অন্ততঃ ৫টি মামলা দেয়া হয়েছে। এসব মামলার বাদী শাসক দল আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতা।

সর্বশেষ রবিবার দিনাজপুরে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মানহানির যে অভিযোগে তার বিরুদ্ধে ধারাবাহিকভাবে মামলা করা হচ্ছে তা সংশ্লিষ্ট আইনের সুস্পষ্ট লংঘন। আইনানুযায়ী কেবল মাত্র যার মানহানি হয়েছে বলে দাবি করা হচ্ছে তিনিই একটি অভিযোগ আনতে পারেন। অন্য কারো অভিযোগ বা একই অভিযোগে একাধিক মামলা আমলে নেওয়ার সুযোগ নেই। অথচ বিভিন্ন জেলায় যথেচ্ছভাবে মামলা করা হচ্ছে এবং তা বিবেচনায় নিয়ে তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে। এটা মত প্রকাশের স্বাধীনতার ও নগ্ন হস্তক্ষেপ এবং কন্ঠরোধের হীন চেষ্টা ছাড়া কিছুই নয়।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে হয়রানিমুলক এসব মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান।

 

সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টুকে জরিমানা
                                  

রংপুর সিটি করপোরেশন (রসিক) নির্বাচনে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টুকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

গতকাল শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আবু রাফা মোহাম্মদ আরিফের নেতৃত্বে নগরীর পায়রা চত্বর ও মাহিগঞ্জ এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয়।

এ সময় ঝন্টুকে এ জরিমানা করা হয়।
ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্র জানায়, মেয়র থাকাকালে সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টু বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের ভিডিওচিত্র নগরীর পায়রা চত্বরে প্রজেক্টরের মাধ্যমে দেখাচ্ছিলেন তার সমর্থকরা। এতে ওই এলাকায় যানজট সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের একটি দল শনিবার সন্ধ্যায় ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ঝন্টুকে দুই হাজার টাকা জরিমানা করেন। এ সময় প্রজেক্টরসহ অন্যান্য ইলেক্ট্রনিক যন্ত্রপাতি জব্দ করা হয়।

অন্যদিকে, নগরীর মাহিগঞ্জ খাসবাগ এলাকায় ঝন্টুর সমর্থনে পথসভা করার সময় ভোটারদের মাঝে খাবার বিতরণ করায় আরো তিন হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

রংপুর রিপোর্টার্স ক্লাবের গুণীজন সংবর্ধনা
                                  

রংপুর রিপোর্টার্স ক্লাবের ১৩ তম বর্ষপূর্তি উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা, গুণীজন সংবর্ধনা, অাজীবন সদস্য সনদ ও রিপোর্টার্স ভয়েসের মোড়ক উন্মোচন করা হয়েছে।

শুক্রবার রাতে রংপুর টাউন হল চত্বরে গুণীজন সংবর্ধনা ক্রেস্ট, ক্লাবের আজীবন সদস্য সনদ তুলে দেন স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা।

এ সময় রংপুর রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি আব্দুল হালিম আনসারী সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, রংপুর বিভাগীয় কমিশনার কাজী হাসান আহমেদ, ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক, রংপুর জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ ওয়াহিদুজ্জামান, রিপোর্টার্স ক্লাবের সাধারন সম্পাদক ও একাত্তর টেলিভিশনের ব্যুরো প্রধান বায়জিদ প্রমুখ।

এ সময় প্রধান অতিথি স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা ব্রিটিশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের চেয়ারম্যান মাহফুজ কবিরসহ ৩০জনকে রিপোর্টার্স ক্লাবের আজীবন সদস্য সদন ও সমাজে বিশেষ অবদানের জন্য প্রায় ২০জনকে গুনীজন সংবর্ধনা ক্রেস্ট তুলে দেন।

অনুষ্ঠানে রিপোর্টার্স ক্লাবের নব নির্বাচত কমিটিকে বরণ করে নেন অতিথিরা। পরে এক জমকালো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানেরর মধ্য দিয়ে রংপুর রিপোর্টার্স ক্লাবের ১৩ তম বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষনা করা হয়।

ব্রিটিশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের চেয়ারম্যানকে সম্মাননা দিল দৈনিক প্রথম খবর
                                  

রংপুর প্রতিনিধি: রংপুর থেকে প্রকাশিত দৈনিক প্রথম খবর পত্রিকার ৬ষ্ঠ বর্ষপূর্তি উপলক্ষে শিক্ষা ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখায় ব্রিটিশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের চেয়ারম্যান মাহফুজ কবিরকে সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে। 

গতকাল শুক্রবার (০৮ ডিসেম্বর) বিকালে দৈনিক প্রথম খবর পত্রিকার প্রধান কার্যালয়ে ৬ষ্ঠ বর্ষপূর্তি উপলক্ষে আলোচনা সভা ও সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়।

আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন দৈনিক প্রথম খবর পত্রিকার প্রতিষ্ঠাতা সাদিকুল আলম, ব্রিটিশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের চেয়ারম্যান মাহফুজ কবির, বিশিষ্ট ব্যবসায়ি আলহাজ আব্দুল্লাহ আল নাসের, দৈনিক প্রথম খবর পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক আব্দুল বারী তোতা প্রমুখ।

মাহফুজ কবির তার বক্তব্যে বলেন, গণমাধ্যম বা পত্রিকা দেশ ও জাতির বিবেক। একটি পত্রিকার মাধ্যমে সমাজকে জাগ্রত করা সম্ভব। দৈনিক প্রথম খবর আমাকে সম্মাননা করায় কর্তৃপক্ষকে আন্তরিক অভিনন্দন জানাচ্ছি।  ব্রিটিশ পরিবার যে সারাদেশে শিক্ষার প্রসার ঘটাতে পারে সেজন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করেন চেয়ারম্যান মাহফুজ কবির।

আলোচনা সভা শেষে প্রথম খবর পত্রিকা ব্রিটিশ ইন্টারন্যাশ স্কুল রংপুর বিভাগে শিক্ষা ক্ষেত্রে অবদানের জন্য শিক্ষা সম্মাননা স্মারক প্রদান করেন পত্রিকা কর্তৃপক্ষ।

ডিএনসিসি উপনির্বাচন >> আ. লীগে আলোচনায় আলাউদ্দিন নাসিম
                                  

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র পদের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে আলাউদ্দিন নাসিমের নাম বিভিন্ন মহলে আলোচিত হচ্ছে। প্রয়াত মেয়র আনিসুল হকের স্ত্রী রুবানা হক ও ছেলে নাভিদুল হক মনোনয়ন না পেলে আলাউদ্দিন নাসিমের মনোনয়ন পাওয়ার সম্ভাবনাই বেশি বলে মনে করছে আওয়ামী লীগের বহু নেতাকর্মী।

আওয়ামী লীগের দুঃসময়ের পরীক্ষিত এই নেতার প্রার্থী হওয়ার সম্ভাবনায় আওয়ামী লীগ এবং এর সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের নেতাকর্মীদের মধ্যে চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সদস্য আলাউদ্দিন নাসিম ১৯৮৬ সালে বিসিএস প্রশাসন সার্ভিসে যোগ দেন। ২১ বছর রাষ্ট্র ক্ষমতার বাইরে থেকে ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করলে আলাউদ্দিন নাসিম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রটোকল কর্মকর্তা পদে নিযুক্ত হন। সেই মেয়াদে শেখ হাসিনা ২০০১ সাল পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। এই পুরোটা সময় আলাউদ্দিন নাসিম প্রধানমন্ত্রীর প্রটোকল কর্মকর্তা ছিলেন।

২০০১ সালে শেখ হাসিনা জাতীয় সংসদে বিরোধীদলীয় নেতা হলে তাঁর এপিএস হন আলাউদ্দিন নাসিম। তিনি আলোচিত এক-এগারোর সময়ে আওয়ামী লীগের পক্ষে সাহসী ভূমিকা রাখেন।

২০০৯ সালে সরকারি চাকরির ইতি টানেন আলাউদ্দিন নাসিম। তিনি সেই সময়ে উপসচিব হিসেবে প্রশাসন ক্যাডার থেকে পদত্যাগ করে অবসরে যান।

বর্তমানে তিনি ব্যবসা করছেন।

আওয়ামী লীগের অনেক নেতাকর্মী বলছে, সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রত্যক্ষভাবে কাজ করার অভিজ্ঞতাসম্পন্ন একজন নেতা নাসিম। তিনি বিগত চট্টগ্রাম, নারায়ণগঞ্জ ও গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর নির্বাচন সমন্বয়ে কাজ করেছেন। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্যও ছিলেন নাসিম।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে নোয়াখালী অঞ্চলের একটি বিশেষ ভোটব্যাংক রয়েছে। সদ্যঃপ্রয়াত মেয়র আনিসুল হকও ছিলেন নোয়াখালী অঞ্চলের। আলাউদ্দিন নাসিমও একই অঞ্চলের হওয়ায় উপনির্বাচনে তাঁকে প্রার্থী হিসেবে দেখতে চাইছেন নোয়াখালীর ভোটাররা। এ বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে দেখছে আওয়ামী লীগের নীতিনির্ধারণী পর্যায়ও। কারণ গত নির্বাচনে লড়া বিএনপির প্রার্থী তাবিথ আউয়ালও নোয়াখালী অঞ্চলের। এই উপনির্বাচনেও তাবিথের প্রার্থী হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। ফলে নোয়াখালী অঞ্চলের ভোটব্যাংকে ভাগ বসাতে চাইলে আলাউদ্দিন নাসিমই হবেন আওয়ামী লীগের জন্য যোগ্য প্রার্থী।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আলাউদ্দিন চৌধুরী নাসিম কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘মনোনয়ন নিয়ে আমাদের পর্যায় থেকে মন্তব্য করার সুযোগ নেই। নেত্রী যাঁকে মনোনয়ন দেবেন, সবাই মিলে সেই সিদ্ধান্ত এগিয়ে নিয়ে যাওয়াটাই আমাদের দায়িত্ব। আওয়ামী লীগের একজন কর্মী হিসেবে আমরা সেই দায়িত্ব পালন করব। ’

‘কোনো পুরুষকে বিশ্বাস করা উচিত নয়’
                                  

শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের ডিভোর্স নিয়ে আলোচনা যখন তুঙ্গে। সেখানে ঘি ঢাললেন লেখিকা তসলিমা নাসরিন। নিজের ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসে শাকিবের জন্য কান্নাকাটি বন্ধ করতে অপুকে পরামর্শ দিয়েছেন তসলিমা।

তিনি বলেন, শাকিবের জন্য কান্নাকাটি হাহুতাশ বন্ধ করতে হবে অপুকে। আপাতত অপু বিশ্বাসের কোনো পুরুষকে বিশ্বাস করা উচিত নয়।

তিনি আরো বলেন, অপুকে এখন নিজের পায়ের তলার মাটি যেমন আরো শক্ত করতে হবে। মনের ভেতরের মাটিও শক্ত করতে হবে। পায়ের তলার মাটি, মনের ভেতরের মাটি- দুটোই এমন নরম, যে কেউ তাদের ডুবিয়ে দিতে পারে কাদায়, যে কেউ আবার তাদের মনেও অনায়াসে ডুবে যেতে পারে।

শাকিব-অপুর ডিভোর্সের বিষয়টি সবার মতো তসলিমা নাসরিনকেও ভাবিয়েছে। তিনি বলেন, বাংলাদেশের ছবির হিরো শাকিব তালাক দিচ্ছে বাংলাদেশের ছবির হিরোইন অপু বিশ্বাসকে। অপুর দোষ, অপু তার স্বামীর নির্দেশ পালন করেনি, তার কথা শোনেনি।

শাকিবকে ভালোবেসে অপু নিজের ধর্ম ছেড়ে শাকিবের ধর্ম গ্রহণ করেছে, শাকিবের বাড়িতে ঝি-চাকরের মতো কাজকর্ম করেছে। শাকিব বিয়ের ব্যাপারটা লুকিয়ে রাখতে বলেছে বলে লুকিয়ে রেখেছে। বাচ্চা হওয়ার খবরটাও লুকিয়ে রাখতে বলেছে বলে দীর্ঘকাল লুকিয়ে রেখেছে। বাচ্চা হওয়ার সময় শাকিব হাসপাতালে যায়নি তারপরও শাকিবের জন্য অপুর ভালোবাসা কিছু কমেনি। এখন বাচ্চা কোলে মেয়েটি পাচ্ছে তালাকনামা।

শাকিবের মতো আত্মম্ভরী পুরুষতান্ত্রিকের সঙ্গে তালাক হয়ে যাওয়া ভালো উল্লেখ করে তসলিমা বলেন, স্বনির্ভর মেয়ে নিজের দেখভাল নিজেই করতে পারে।

 

সচিবালয়ে বসার জায়গা নিয়ে ক্ষুব্ধ ২ শতাধিক কর্মকর্তা
                                  

ঢাকার বাইরে বিশাল বাংলো, হাজারো প্রটোকল। জেলার শীর্ষ কর্মকর্তা হিসেবে ডিসির সম্মান একটু আলাদাই। সেই তিনিই বদলি হয়ে এখন সচিবালয়ে। অথচ বসবার একটি আসনের জন্য তাকে প্রতিদিন তীর্থের কাকের মতো প্রহর গুণতে হচ্ছে।বাংলাদেশে সচিবালয়ে সহকারী সচিব, যুগ্ম সচিব, অতিরিক্ত সচিব এমনকি সিনিয়র অতিরিক্ত সচিব পর্যায়ের কর্মকর্তাদের বসার জায়গা সংকুলান না হওয়ায় তাদের মাঝে তৈরি হয়েছে অসন্তোষ।

 

বর্তমানে এ অসন্তোষ প্রকাশ্যে রূপ নিয়েছে। ক্যাডার ও নন ক্যাডার অফিসারদের মাঝেও বেড়েছে মনস্তাত্ত্বিক দূরত্ব।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, সচিবালয়ে এখন বসার আসন নিয়ে অন্তত দুই শতাধিক কর্মকর্তার মধ্যে অসন্তোষ বিরাজ করছে। ফলে রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ কাজ সম্পাদনে তৈরি হচ্ছে দীর্ঘসূত্রিতা। গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্পের ফাইলও সই হতে লেগে যাচ্ছে মাসের পর মাস।

এসব নিয়ে প্রায় প্রতিদিনিই এক কর্মকর্তার অগোচরে আরেক কর্মকর্তাকে বিষোদগার করতে দেখা যায়।

সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ে ডিএস (উপসচিব) পদে বদলি হয়ে আসা মো. জাহেদুল জামান তিন মাসেও তার বসার জায়গা পাননি। অধঃস্তন কর্মকর্তারা বাইরে গেলে সেখানে বসে দাফতরিক কাজ করেন তিনি। সেটিও সম্ভব না হলে মন্ত্রণালয়ের পাবলিক লাইব্রেরিতে বসতে হচ্ছে এ কর্মকর্তাকে।

একই মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব কাজী মো. মাইনুদ্দিনও বসার নির্দিষ্ট আসন পাননি। তাদেরই ভাগ্য পেয়েছেন সহকারী সচিব পদ মর্যাদার মন্ত্রণালয়ের সহকারী প্রধান বিপিন চন্দ্র বিশ্বাস, তারও নেই বসার কোনো জায়গা।

তথ্য মন্ত্রণালয়ের বাজেট অধি শাখার দায়িত্বে থাকা ডিএস মো. রবিউল ইসলামের (উপ-সচিব পদ মর্যাদা) অধীনে থাকা দুজন সহকারী সচিবকে বসার জায়গা দিতে পারেনি মন্ত্রণালয়। তারা হলেন- তাহমিনা জাকারিয়া ও মনিরুল ইসলাম।

এমনকি এ শাখার দায়িত্বপ্রাপ্ত আরেক কর্মকর্তা, দুই ব্যক্তিগত কর্মকর্তা ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা কোনো রকমে দুটি চেয়ার পেতে বসতে পারছেন।

একই মন্ত্রণালয়ের আইন অধি শাখায় ৭ জন নতুন উপসচিব পদের বিপরীতে যোগদান করেছেন মাত্র একজন। নতুন আসা এই কর্মকর্তার বসার জায়গা নেই উক্ত শাখায়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক শাখাটির এক প্রশাসনিক কর্মকর্তা ক্ষোভ প্রকাশ করে পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, একজন আসার পরই ত্রাহি অবস্থা। বাকি ৬ জন যোগদান করলে কি হবে, আল্লাহই ভালো জানেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মন্ত্রণালয়ের প্রশাসন বিভাগের আরেক কর্মকর্তা পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, আমি ১৫ বছর আগে এ শাখায় নিয়োগ পাই। তখন এ রুমে একাই বসতাম। এখন খেয়াল করে দেখুন, রুমটিতে আমরা ৮ জন বসি। জনবল বৃদ্ধির সঙ্গে বসার জায়গা না বাড়ায় আমরা বেশ আতঙ্কিতই বলা চলে।

শিক্ষা মন্ত্রণায়ের অবস্থাও একই। মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব জাবেদ হোসেন ও যুগ্ম সচিব জয়নুল বারীকে দীর্ঘদিন বসার জায়গা দিতে না পেরে সম্প্রতি একটি আপদকালীন ব্যবস্থা করা হয়েছে। এক রুমের মধ্যে গ্লাসের পার্টিশানের দুপাশে তারা বসছেন। সিনিয়র সহকারী সচিব জান্নাতুল ফাতেমা ও আবু কাইসারকেও একই পন্থায় বসার জায়গা করে দিয়েছেন ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ।

খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, অনেক সময় ক্যাডার কর্মকর্তাদের আগমনে সরিয়ে দেওয়া হয় নন-ক্যাডার কর্মকর্তাদের। সম পদ মর্যাদায় থাকার পরও আসন ছেড়ে দেওয়া নিয়ে দুই ক্যাডার কর্মকর্তাদের সম্পর্কে চিড় ধরে। কখনো কখনো তা প্রকাশ্যে রূপ নিচ্ছে।

সম্প্রতি সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের বসার জায়গা না পাওয়া এক কর্মকর্তার কাছে অফিসের ফাইল প্রশাসন শাখা থেকে স্বাক্ষরে জন্য উপস্থাপন করা হলে তিনি সেই কর্মচারীকে ফিরিয়ে দেন। সঙ্গে এও বলেন, আমি কি রাস্তায় রাস্তায় ফাইল সই করব?

সচিবালয়ের আসন সমস্যা নিয়ে মন্ত্রণালয়গুলোর অভিযোগ, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অবহেলার কারণেই এই সংকট দিনকে দিন তীব্র হচ্ছে।

কিন্তু, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগের উপ-সচিব জুবাইদা নাসরিন পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, কোন কর্মকর্তা কোথায় বসবেন, তা নির্ধারণের দায়িত্ব সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের। আমাদের ঘাঁড়ে দোষ চাপিয়ে লাভ নেই।

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানানোর দায়িত্ব কার?- এমন প্রশ্নের জবাবে বদলি দায়িত্বে থাকা জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব আলিয়া মেহের পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, প্রত্যেক কর্মকর্তার বসার জায়গা ঠিক করে দেওয়ার দায়িত্ব সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের কর্তা ব্যক্তিদের। তবে এক্ষেত্রে কোনো সহায়তা চাইলে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় তা করতে পারে।

তিনি বলেন, দেখুন, আমি নিজেও ভূমি মন্ত্রণালয়ে থাকতে ৬ মাস বসার জায়গা পাইনি। কিন্তু, দাফতরিক কাজ তো থেমে থাকেনি।

এ ঘটনায় কর্মকর্তাদের পারস্পারিক সম্পর্কে চিড় ধরছে কিনা এমন প্রশ্নে আলিয়া মেহের বলেন, এ বিষয়ে আমি কিছু বলতে চাইছি না। সম্পর্ক তো নির্ভর করে আপনি আমার সঙ্গে কিভাবে রক্ষা করতে চাচ্ছেন, তার ওপর। তবে বড় বিষয় হচ্ছে, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ডিমান্ড নোট দেওয়ার পরই আমরা তাদের ওখানে জনবল দিয়ে থাকি। বিষয়গুলো সমাধানের জন্য আরো সময় প্রয়োজন।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, বিগত তিন মাসে ৩১ সহকারী সচিবকে আন্তঃমন্ত্রণালয়ে বদলি করা হয়েছে। ১২ জনকে ২০১৫ সালের গ্রেড-৬ এ পদোন্নতি প্রদান করা হয়েছে। ঢাকার বাইরে থেকে মন্ত্রণালয়গুলোতে ১১ জন সহকারী সচিব পদে সচিবালয়ে নিযুক্ত করা হয়েছে।

গেল তিন মাসে ৯৩ জন সিনিয়র সহকারী সচিবকে অন্তঃমন্ত্রণালয়ে বদলি করা হয়েছে। বাধ্যতামূলক অপেক্ষমাণকাল হিসেবে রাখা হয়েছে বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন বোর্ড চট্টগ্রামের সিনিয়র সহাকারী সচিব মোহাম্মদ মোয়াজ্জেম হোসাইনকে। নতুন করে সিনিয়র সহাকারী সচিব পদে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে ৪ কর্মকর্তাকে।

সচিবালয়ে অবস্থিত বেশ কটি ভবনে প্রায় ৪৫টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগের অফিস রয়েছে, যেখানে মন্ত্রী, সচিবসহ অধঃস্তন কর্মকর্তারা প্রতিদিন দাফতরিক কার্যক্রম পরিচালনা করেন। কিন্তু, দেশের সর্বোচ্চ এ প্রশাসনিক দফতরে এমন গাদাগাদি অবস্থায় ব্যাহত হচ্ছে স্বাভাবিক কার্যক্রম।

 

বিএনপির ক্রীড়া সম্পাদক আমিনুল কারাগারে
                                  

নাশকতার অভিযোগে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক অধিনায়ক ও বিএনপির কেন্দ্রীয় ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক আমিনুল ইসলামকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (০৬ ডিসেম্বর) ঢাকা মহানগর হাকিম সাদবীর ইয়াসির আহসান চৌধুরী তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

শাহবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোজাম্মেল হোসেন জানান, বঙ্গবাজারের সামনে পুলিশের কাজে বাধা ও অগ্নিসংযোগের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় আমিনুলের বিরুদ্ধে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়ে রিমান্ড শুনানির জন্য আগামী ১০ ডিসেম্বের দিন ধার্য করেন।

এর আগে মঙ্গলবার বিকেলে পুলিশের ওপর হামলা, ভাঙচুর ও রাস্তা অবরোধ করে যানচলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টির অভিযোগে বঙ্গবাজারের সামনে থেকে আমিনুলকে আটক করে পুলিশ।

২০১৪ সালের মার্চে বেগম খালেদা জিয়ার হাতে ফুল দিয়ে বিএনপিতে যোগ দেন বাংলাদেশ ফুটবলের সাবেক অধিনায়ক আমিনুল হক। দীর্ঘ ১৭ বছরের ক্রীড়াজীবনে দেশের জন্য একাধিক সম্মাননা বয়ে আনা আমিনুল খেলাধুলা থেকে অবসরে গিয়ে রাজনীতিতে যুক্ত হন। 

ফুটবল দলের অন্যতম সফল এই গোলরক্ষকের জন্ম ১৯৮০ সালের ৫ই অক্টোবর। জাতীয় দলে অভিষেকের আগেও ১৯৯৪ সালে খেলেছেন মোহামেডান স্পোর্টিং কাবের হয়ে জুনিয়র দলে। তার দুই বছর পর প্রথম শ্রেণির ফুটবলে আমিনুলের অভিষেক হয়। ১৯৯৬ সালেই জাতীয় দলে ডাক পান আমিনুল হক। তবে জাতীয় দলে কাঙ্খিত অভিষেক হয় ১৯৯৮ সালে কাতারের সাথে প্রীতি ম্যাচে। সেই থেকে ক্যারিয়ার শুরু।

 

রাজশাহীতে ছাত্রীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা, আইএইচটি বন্ধ
                                  

রাজশাহী ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজিতে (আইএইচটি) ছাত্রীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি এড়াতে অনির্দিষ্টকালের জন্য আইএইচটি বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

বুধবার বেলা ১১টার দিকে কর্তৃপক্ষ এ ঘোষণা দেয়। দুপুর ১টার মধ্যে ছাত্রদের এবং বিকেল ৩টার মধ্যে ছাত্রীদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এর আগে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ছাত্রীনিবাসে নিরাপত্তার দাবিতে অধ্যক্ষের কক্ষের সামনে অবস্থান নেন ছাত্রীরা। একপর্যায়ে বিক্ষুব্ধ ছাত্রীরা অধ্যক্ষের কক্ষে প্রবেশ করে তাকে অবরুদ্ধ করেন। ওই সময় ছাত্রীদের অভিযোগ মিথ্যা দাবি করে বহিরাগতদের নিয়ে অবস্থান নেয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

পরে পুলিশ আন্দোলনরত ছাত্রীদের অধ্যক্ষের কক্ষ থেকে বের করে আনলে তাদের ওপর হামলা চালায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এতে চারজন ছাত্রী আহত হয়েছেন। তাদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (রামেক) ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় ক্যাম্পাসে উত্তেজনা ছড়ালে ক্যাম্পাস বন্ধ ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ।

আন্দোলনরত ছাত্রীরা জানান, গত ৩ ডিসেম্বর ক্যাম্পাসে মেডিকেল টেকনোলজিস্টদের কেন্দ্রীয় কর্মসূচি ছিল। তাতে কয়েকজন ছাত্রী যোগ দিতে পারেননি। ওই দিনই এনিয়ে ছাত্রলীগের নেতারা ছাত্রীনিবাসে অবৈধ অনুপ্রবেশ করে ছাত্রীদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন।

এক পর্যায়ে তারা ছাত্রীনিবাসের কলাপসিবল গেইট পর্যন্ত চলে যান। এর আগেও বিভিন্ন সময় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা অবাধে ছাত্রীনিবাসে প্রবেশ করতেন। ছাত্রী ও দর্শনার্থীদের নানাভাবে হয়রানি করতেন। এনিয়ে অভিযোগ পেয়েও তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছিলেন না অধ্যক্ষ। এ ঘটনায় ছাত্রীনিবাসে নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছেন ছাত্রীরা।

এরই প্রেক্ষিতে বুধবার সকালে ছাত্রীরা আইএইচটি অধ্যক্ষ বরাবর অভিযোগ দেন। এর আগে অধ্যক্ষের কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করেন ছাত্রীরা। পরে সেখান থেকে ফেরার পথে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ছাত্রীদের ওপর হামলা চালান। এ সময় সেখানে অধ্যক্ষ ছাড়াও বিপুল সংখ্যক পুলিশ সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

ছাত্রীদের অভিযোগ, স্লোগান দিয়ে ছাত্রীদের ওপর হামলা চালিয়েছে ছাত্রলীগ। এর আগে ক্যাম্পাসে তাদের শো-ডাউনে আতঙ্কিত হয়ে পড়ে ছাত্রীরা। পরে অধ্যক্ষ নিজেই ছাত্রীদের নিরাপদে ছাত্রীনিবাসে ঢুকিয়ে দিচ্ছিলেন। কিন্তু অধ্যক্ষের উপস্থিতিতেই ছাত্রীদের ওপরে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা হামলা চালান। এতে চারজন ছাত্রী আহত হয়েছেন। এ সময় উপস্থিত পুলিশের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন ছাত্রীরা।

তবে ছাত্রীদের ওপর হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ছাত্রলীগের আইএইচটি শাখার সভাপতি জাহিদুল ইসলাম। তিনি বলেন, তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে পড়ে গিয়ে কয়েকজন ছাত্রী সামান্য আহত হয়েছেন। তাদের চিকিৎসা প্রতিবেদন দেখলেই বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে।

আইএইচটির অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলাম বলেন, ছাত্রীদের ওপর ছাত্রলীগ হামলা চালায়নি। ছোট গেইট দিয়ে তাড়াহুড়ো করে ভেতরে ঢুকতে গিয়ে ছাত্রীরা পড়ে গিয়ে আহত হয়েছে। ছাত্রলীগ নেতাদের বিরুদ্ধে তোলা ছাত্রীদের অভিযোগ তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দেন অধ্যক্ষ।

আইএইচটি বন্ধের বিষয়ে অধ্যক্ষ বলেন, অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি এড়াতে আপাতত প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

দুদকের জিজ্ঞাসাবাদে অসুস্থ বোধ করছেন বাচ্চু
                                  

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) জিজ্ঞাসাবাদে অসুস্থ অনুভব করছেন বেসিক ব্যাংকের প্রাক্তন চেয়ারম্যান আবদুল হাই বাচ্চু।

প্রায় সাড়ে ৪ হাজার কোটি টাকার ঋণ জালিয়াতির অভিযোগ তদন্তে বেসিক ব্যাংকের প্রাক্তন চেয়ারম্যান আবদুল হাই বাচ্চুকে বুধবার সকাল ১০টা থেকে দুদক পরিচালক জায়েদ হোসেন খান ও সৈয়দ ইকবাল হোসেনের নেতৃত্বে একটি বিশেষ টিম জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

দুদক টিমের জিজ্ঞাসাবাদে আবদুল হাই বাচ্চু অসুস্থ বোধ করেন। এক পর্যায়ে দুদক কার্যালয়ের চিকিৎসক ডা. জ্যোতির্ময় চৌধুরী তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেন।

দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য রাইজিংবিডিকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, তিনি হাইপারটেনশনের রোগী হওয়ায় জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে বেলা আড়াইটার দিকে অসুস্থতা অনুভব করেন। দুদকের ডাক্তার তাকে চেক-আপ করেন। তবে ডাক্তারের মতে তিনি সুস্থ আছেন।

এর আগে গত ৪ ডিসেম্বর দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে সাংবাদিকদের কাছে নিজেকে নির্দোষ দাবি করে আবদুল হাই বাচ্চু বলেন, ‘তদন্ত চলা অবস্থায় দুদক যে অভিযোগগুলো সম্পর্কে প্রশ্ন করেছে সেগুলোর উত্তর দেওয়া হয়েছে। প্রয়োজন বোধে আমি আরো সহযোগিতা করব। যেটুকু আমার সম্ভব, তার উত্তর দেওয়া হয়েছে। অভিযোগের তদন্ত চলছে, তা এখনো প্রমাণিত হয়নি। কাজেই এ বিষয়ে বলা খুব মুশকিল। তদন্ত চলছে দেখা যাক কী হয়।’

বেসিক ব্যাংকের দুর্নীতি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের কয়েক দফা পর্যবেক্ষণ আসার পর সম্প্রতি ব্যাংকটির প্রাক্তন চেয়ারম্যান বাচ্চু ও পরিচালনা পর্ষদের সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদের উদ্যোগ নেয় দুদক। ঋণ কেলেঙ্কারির এ ঘটনায় দুদকের এই জিজ্ঞাসাবাদ চলছে গত ২২ নভেম্বর থেকে। এর আগে রোববার পর্যন্ত বেসিক ব্যাংকের প্রাক্তন ১০ পরিচালককে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

বেসিক ব্যাংক কেলেঙ্কারিতে ২০১৫ সালের ২১, ২২ ও ২৩ সেপ্টেম্বর তিন দিনে টানা ৫৬টি মামলা করেন দুদকের অনুসন্ধান দলের সদস্যরা। রাজধানীর মতিঝিল, পল্টন ও গুলশান থানায় এসব মামলায় মোট আসামি করা হয় ১৫৬ জনকে।

মামলায় ২ হাজার ৬৫ কোটি টাকা অনিয়মের মাধ্যমে ঋণ দেওয়া হয় বলে অভিযোগ আনা হয়। এর মধ্যে রাজধানীর গুলশান শাখার মাধ্যমে ১ হাজার ৩০০ কোটি টাকা, শান্তিনগর শাখায় ৩৮৭ কোটি টাকা, প্রধান শাখায় প্রায় ২৪৮ কোটি টাকা এবং দিলকুশা শাখার মাধ্যমে অনিয়ম করে ১৩০ কোটি টাকা ঋণ দেওয়া হয়। এ ছাড়া কেলেঙ্কারির অভিযোগের বাকি অংশের অনুসন্ধান দুদকে চলমান।

মামলায় আসামিদের মধ্যে বেসিক ব্যাংকের কর্মকর্তা রযেছেন ২৬ জন। বাকি ১৩০ জন আসামি ঋণগ্রহীতা ৫৪ প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধিকারী ও সার্ভে প্রতিষ্ঠান। ব্যাংকার ও ঋণ গ্রহীতাদের অনেকেই একাধিক মামলায় আসামি হয়েছেন।

এর মধ্যে ব্যাংকের প্রাক্তন এমডি কাজী ফখরুল ইসলামকে আসামি করা হয়েছে ৪৮ মামলায়। সম্প্রতি গ্রেপ্তার হওয়া ডিএমডি ফজলুস সোবহান ৪৭টি, কনক কুমার পুরকায়স্থ ২৩টি, গ্রেপ্তার হওয়া মো. সেলিম আটটি, বরখাস্ত হওয়া ডিএমডি এ মোনায়েম খান ৩৫টি মামলার আসামি। তবে কোনো মামলায় ব্যাংকের প্রাক্তন চেয়ারম্যান আবদুল হাই বাচ্চুরসহ পরিচালনা পর্ষদের কাউকে আসামি করা হয়নি।

যদিও বাংলাদেশ ব্যাংক, অর্থ মন্ত্রণালয়, সিএজি কার্যালয় ও খোদ বেসিক ব্যাংকের নানা প্রতিবেদনে এ কেলেঙ্কারির সঙ্গে প্রাক্তন চেয়ারম্যান বাচ্চুসহ অনেকের সংশ্লিষ্টতার প্রমাণ পাওয়া গেছে। এমনকি বিভিন্ন সময়ে শুনানিতে এ বিষয়ে আদালতের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে দুদককে। মূলত এরপরই দুদক থেকে বেসিক ব্যাংকের চেয়ারম্যানসহ পরিচালনা পর্ষদের বিষয়ে এ গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

২০১৫ সালের ২২ অক্টোবর মামলার তদন্তে দুদকের উপপরিচালক মোরশেদ আলম, মো. ইব্রাহিম ও ঋত্বিক সাহা, সহকারী পরিচালক শামসুল আলম, উপসহকারী পরিচালক ফজলে হোসেন ও মুহাম্মদ জয়নাল আবেদীনকে তদন্ত কর্মকর্তা নিয়োগ দেওয়া হয়। মামলার তদারককারী কর্মকর্তারা হলেন- পরিচালক জায়েদ হোসেন খান ও সৈয়দ ইকবাল হোসেন।

বাচ্চুকে ২০০৯ সালে বেসিক ব্যাংকের চেয়ারম্যান পদে নিয়োগ দেয় সরকার। ২০১২ সালে তার নিয়োগ নবায়নও হয়। কিন্তু ঋণ কেলেঙ্কারির অভিযোগ উঠলে ২০১৪ সালে ব্যাংকটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী ফখরুল ইসলামকে অপসারণ করার পর চাপের মুখে থাকা বাচ্চু পদত্যাগ করেন।

মেয়র প্রার্থীর এই প্রচারে বিরক্ত আনিসুল হকের পরিবার
                                  

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যুর পরপরই সম্ভাব্য মেয়র পদের প্রার্থীদের ছবি দিয়ে গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশ শুরু হয়েছে। এর মধ্যে আনিসুল হকের পরিবারের সদস্যদেরও ছবি ছাপা হয়েছে সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে। এই প্রচারণায় বিরক্ত আনিসুল হকের পরিবার। গতকাল মঙ্গলবার ফেসবুকে এক স্ট্যাটাস দিয়ে এই বিরক্তির কথা জানিয়েছেন প্রয়াত আনিসুল হকের স্ত্রী রুবানা হক।

ফেসবুক স্ট্যাটাসে রুবানা হক এখনই তাঁর পরিবারের সদস্যদের সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী বানিয়ে প্রচারণা না করার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি লেখেন, ‘আমরা কেউ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব (পাবলিক ফিগার) নই। আপনারা যদি আমার পরিচিত হন বা কখনো আনিসকে (আনিসুল হক) ভালোবেসে থাকেন, তাহলে আমাদের বাড়িতে আসুন। আমাদের মায়ার জালে জড়ান। দয়া করে আমাদের রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ, মেয়র পদ লাভ কিংবা এ-জাতীয় কিছু নিয়ে গল্প-কাহিনি ছড়াবেন না।’

রাজনীতির মাহাত্ম্য তুলে ধরে রুবানা হক লেখেন, ‘জনসেবা খুবই গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব। একজন ভালো রাজনীতিক তাঁর চারপাশে পরিবর্তন নিয়ে আসতে পারেন। আনিস যদি জনসেবায় না আসতেন, তাহলে তাঁর শেষ বিদায় এতটা ভালোবাসায় মোড়ানো হতো না। সুতরাং জনসেবার মতো বিষয় (পাবলিক সার্ভিস) নিয়ে আমাদের তামাশায় মেতে ওঠা উচিত নয়।’

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যুর পরপরই সম্ভাব্য মেয়র পদের প্রার্থীদের ছবি দিয়ে গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশ শুরু হয়েছে। এর মধ্যে আনিসুল হকের পরিবারের সদস্যদেরও ছবি ছাপা হয়েছে সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে। এই প্রচারণায় বিরক্ত আনিসুল হকের পরিবার।

সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আলতাফ চৌধুরিকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ
                                  

বড় পুকুরিয়া কয়লাখনি দুর্নীতি মামলা বাতিল প্রশ্নে জারি করা রুল খারিজ করে দিয়ে হাইকোর্ট বুধবার সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আলতাফ হোসেন চৌধুরিকে চার সপ্তাহের মধ্যে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছেন।

বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি শহিদুল করিমের সমন্বয়ে গঠিত হইকোর্ট বেঞ্চ এই রায় ঘোষণা করেন। এসময় দুদকের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট খুরশিদ আলম খান এবং রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল ইউসুফ মাহমুদ মোরশেদ।

বড় পুকুরিয়া কয়লা খনি দুর্নীতি মামলার বিচারিক কার্যক্রম ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৯ এ চলছে। 

খালেদা জিয়া, আলতাফ হোসেন চৌধুরী ছাড়াও ওই মামলায় আসামিরা হলেন- মতিউর রহমান নিজামী ও আলী আহসান মুজাহিদ (মৃত্যুদণ্ড কার্যকর) এম সাইফুর রহমান (মৃত), আবদুল মান্নান ভূঁইয়া (মৃত), ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, এম কে আনোয়ার (মৃত), এম শামসুল ইসলাম (মৃত), ব্যারিস্টার আমিনুল হক, এ কে এম মোশাররফ হোসেন, জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সচিব নজরুল ইসলাম, পেট্রোবাংলার সাবেক চেয়ারম্যান এস আর ওসমানী, সাবেক পরিচালক মঈনুল আহসান।

এই চোরদের ধরিয়ে দিন
                                  

সম্প্রতি রাজধানীর নয়াপল্টনের একটি বাড়িতে দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটে। দিনেদুপুরে বাড়ির তৃতীয় তলায় দরজা ভেঙে নগদ টাকাসহ দেড় লাখ টাকার মালামাল লুটে নেয় চোরের দল।

.

সেই চোরদের ধরতে সহায়তা চেয়ে বুধবার ছবিসহ সংবাদ প্রকাশ করেছে ডিএমপি নিউজ।

সেখানে বলা হয়, গত ২৯ নভেম্বর সকাল সাড়ে ১১টার দিকে পল্টন থানাধীন ৫৫/১ বাড়িতে এই চুরির ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে পল্টন থানায় মামলা করেন ভুক্তভোগী বাড়ির ভাড়াটিয়া। এখন পর্যন্ত চোরদের পরিচয় জানা যায়নি। তবে ওই বাসার সামনের রাস্তার সিসিটিভি’র ফুটেজ দেখে চোরদের ছবি বের করা হয়।

চোরদের ধরতে ও মামলা সুষ্ঠু তদন্ত এবং বিচারের জন্য চোরদের ধরিয়ে দিতে অনুরোধ জানিয়েছে ডিএমপি।

কেউ ওই ব্যক্তিদের সন্ধান জেনে থাকলে পল্টন থানা অফিসার ইনচার্জের (ওসি) মোবাইল নম্বরে( 0১৭১৩৩৭৩১৫৫) যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে।


   Page 1 of 112
     বিশেষ সংবাদ
মার্কিন দূতাবাস ঘেরাওয়ে বাধা, শুক্রবার দেশব্যাপী বিক্ষোভ
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
চাকরি হারাচ্ছেন শিক্ষক সমিতির সভাপতি ইনছান আলী
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
অবৈধ স্থাপনা : আনোয়ার খান মডার্ন হাসপাতালকে জরিমানা
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
ভিন্নমত দমনে মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে সিরিজ মামলা: বিএফইউজে
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টুকে জরিমানা
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
রংপুর রিপোর্টার্স ক্লাবের গুণীজন সংবর্ধনা
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
ব্রিটিশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের চেয়ারম্যানকে সম্মাননা দিল দৈনিক প্রথম খবর
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
ডিএনসিসি উপনির্বাচন >> আ. লীগে আলোচনায় আলাউদ্দিন নাসিম
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
‘কোনো পুরুষকে বিশ্বাস করা উচিত নয়’
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
সচিবালয়ে বসার জায়গা নিয়ে ক্ষুব্ধ ২ শতাধিক কর্মকর্তা
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
বিএনপির ক্রীড়া সম্পাদক আমিনুল কারাগারে
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
রাজশাহীতে ছাত্রীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা, আইএইচটি বন্ধ
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
দুদকের জিজ্ঞাসাবাদে অসুস্থ বোধ করছেন বাচ্চু
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
মেয়র প্রার্থীর এই প্রচারে বিরক্ত আনিসুল হকের পরিবার
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আলতাফ চৌধুরিকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
এই চোরদের ধরিয়ে দিন
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
‘আমি কখনো রাজনীতি করিনি, করবোও না’
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
‘আপনি জাতির জনকের কন্যা, মাদার অব হিউম্যানিটি’
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
হঠাৎ চড়া সবজি বাজার
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
মেয়র আনিসুল হকের অসমাপ্ত কাজ বাস্তবায়নে ভ্রাম্যমাণ আদালত
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষ, হাইকোর্ট-বঙ্গবাজার রণক্ষেত্র
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
আবারও বেড়েছে চালের দাম
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
রোহিঙ্গাদের অস্ত্র-মাদক থেকে বিরত রাখতে হবে : তথ্যমন্ত্রী
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
শেখ হাসিনাকে ‘বোন’ ডাকলেন কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রী
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
নূর হোসেন কারাগারে থাকলেও থেমে নেই চাঁদাবাজি
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
রাজধানীতে ৮ বছরের শিশুকে ধর্ষণ
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
বেসিক ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান বাচ্চুকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
ভুয়া নিউজ করে ধরা খেলো সময় টিভি!
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
তুমি রবে নীরবে হৃদয়ে...
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
বেসিক ব্যাংকের আরো দুই প্রাক্তন পরিচালককে জিজ্ঞাসাবাদ
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
শূন্য ঘোষণার ৯০ দিনের মধ্যে মেয়র পদে ভোট
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
হিরো আলমের প্রস্তাব ভেবে দেখবেন রোবট সোফিয়া!
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
দেশের এক শতাংশ লোক প্রতিবন্ধী : অর্থমন্ত্রী
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
মুন্সীগঞ্জে বিএনপির মিছিল পণ্ড
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
আনিসুল হকের স্বপ্নের ঢাকা বিনির্মাণে হাল ধরবেন কে?
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
যে কারণে রোহিঙ্গা শব্দটি বলেননি পোপ
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
আইসিইউতে মেয়র আনিসুলের অবস্থার অবনতি
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
ডেসটিনির চেয়ারম্যান-এমডির তদবিরকারীকে বের করে দিলেন ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
জাবিতে ১২ ছাত্রের মেসেঞ্জারে ছাত্রী-শিক্ষিকা আপত্তিকর!
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
বাংলাদেশের মানুষকে রোবট সোফিয়ার শুভেচ্ছা
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
স্বামীকে হত্যায় রাশেদার খরচ মাত্র ৫ হাজার টাকা!
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
ঢাকায় পৌঁছেছেন পোপ ফ্রান্সিস
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
৮ লক্ষ দাম উঠল মাছটির!
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
মানহানির মামলায় খালেদা জিয়া - গয়েশ্বরের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ৯ জানুয়ারি
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
আগামী রোববার পর্যন্ত বন্ধ থাকবে লেকহেড গ্রামার স্কুল
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
এক পিতার নীরব প্রতিবাদ : বিবেকের টনক নড়বে কি?
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
আগাম নির্বাচনেও প্রস্তুত কমিশন: সিইসি
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
ঈশ্বরদীতে ৪ সাংবাদিককে মারধর, ক্যামেরা ভাঙচুর
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
বিলুপ্ত হচ্ছে বিতর্কিত ৫৭ ধারা
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
শাজনীন হত্যার আসামি শহীদের ফাঁসি রাতেই কার্যকর
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......