আন্তর্জাতিক -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
ফিলিপাইনে হোটেলে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ৪

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ফিলিপাইনের রাজধানী ম্যানিলার একটি হোটেলে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় চারজন নিহত হয়েছে। উদ্ধারকারী দলের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, রোববার হোটেলের ছয়তলায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় বেশ কয়েকজন আটকা পড়েছেন। খবর চ্যানেল নিউজ এশিয়া।

ম্যানিলা দুর্যোগ ঝুঁকি প্রশমন দফতরের প্রধান জনি ইউ এক বিবৃতিতে বলেন, অগ্নিকাণ্ডে ম্যানিলা প্যাভিলিয়ন হোটেলে প্রায় ২০ জন আটকা পড়েছেন।

তিনি বলেন, অগ্নিনির্বাপক দফতর থেকে আমাদের জানানো হয়েছে, হোটেলের ছয়তলায় ১৯ থেকে ২০ জনকে আটকা পড়ে থাকতে দেখা গেছে। তারা সবাই বেঁচে আছেন। তবে কিভাবে ওই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে তা এখনও নিশ্চিত নয়।

 

ফিলিপাইনে হোটেলে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ৪
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ফিলিপাইনের রাজধানী ম্যানিলার একটি হোটেলে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় চারজন নিহত হয়েছে। উদ্ধারকারী দলের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, রোববার হোটেলের ছয়তলায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় বেশ কয়েকজন আটকা পড়েছেন। খবর চ্যানেল নিউজ এশিয়া।

ম্যানিলা দুর্যোগ ঝুঁকি প্রশমন দফতরের প্রধান জনি ইউ এক বিবৃতিতে বলেন, অগ্নিকাণ্ডে ম্যানিলা প্যাভিলিয়ন হোটেলে প্রায় ২০ জন আটকা পড়েছেন।

তিনি বলেন, অগ্নিনির্বাপক দফতর থেকে আমাদের জানানো হয়েছে, হোটেলের ছয়তলায় ১৯ থেকে ২০ জনকে আটকা পড়ে থাকতে দেখা গেছে। তারা সবাই বেঁচে আছেন। তবে কিভাবে ওই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে তা এখনও নিশ্চিত নয়।

 

নেপালের প্রধান বিচারপতি বরখাস্ত
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভুয়া জন্ম তারিখ দেখিয়ে দীর্ঘ সময় পদে থাকা চেষ্টা করার অভিযোগে বরখাস্ত করা হয়েছে নেপালের প্রধান বিচারপতি গোপাল পারাজুলি’কে। বুধবার তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি। 

এতে বলা হয়, বিচারপতি পারাজুলির জন্ম তারিখ নিয়ে নেপালে অনেক সময় ধরে বিতর্ক চলছে। এতে মানুষের মধ্যে দেখা ড়িয়েছে বিভক্তি। নেপালের প্রথম সারির একজন অধিকারকর্মী ও নেপালের একটি বহুল প্রচারিত পত্রিকার বিরুদ্ধে তিনি আদালত অবমাননার অভিযোগ আনেন।

এরপরই বিচারপতির অনেক জন্মদিন নিয়ে অভিযোগ ওঠে। তা নিয়ে তীব্র বিতর্ক চলতে থাকে। এ নিয়ে জুডিশিয়াল কাউন্সিল তার পর্যবেক্ষণে বলে যে, সাত মাস আগেই পারাজুলির বয়স হয়েছে ৬৫ বছর। তাই তার ওই সাত মাস আগেই পদত্যাগ করা উচিত ছিল। নেপালে সরকারি কর্মকর্তাদের অবসরের বয়সসীমা ওই ৬৫ বছর। জুডিশিয়াল কাউন্সিলের সেক্রেটারি নৃপধোজ নিরাউলা বলেছেন, আমাদের অনুসন্ধানে দেখতে পেয়েছি বিচারপতি পারাজুলি গত আগস্টেই তার অবসরে যাওয়ার বয়স পেরিয়ে এসেছেন। তার উচিত ছিল পদ থেকে সরে অবসরে যাওয়া। 

ওদিকে নেপালে দ্বিতীয় মেয়াদে প্রেসিডেন্ট হিসেবে পুনর্নির্বাচিত হয়েছেন বিদ্যা ভান্ডারি। প্রধান বিচারপতি হিসেবে গোপাল পারাজুলি তাকে শপথ পরানোর পরে এমন সিদ্ধান্তের খবর জানানো হয়েছে। ফলে তার ওই শপথ পড়ানো এখন অর্থহীন হয়ে পড়েছে। তবে নিশ্চিত করে জানা যায় নি, প্রেসিডেন্ট বিদ্যা ভান্ডারিকে নতুন করে শপথ পড়তে হবে কিনা।

 উল্লেখ্য, নেপালে বহুল প্রচলিত একটি পত্রিকা হলো কান্তিপুর ডেইলি। ফেব্রুয়ারি মাসে এই পত্রিকাকে তলব করেন পারাজুলি। সিরিজ প্রতিবেদনে আদালত অবমাননার অভিযোগে ওই পত্রিকাকে তলব করা হয়।

 পত্রিকাটি তার রিপোর্টে প্রধান বিচারপতি হিসেবে গোপাল পারাজুলির কমপক্ষে ৫টি ভিন্ন জন্মতারিখ উল্লেখ করে। সরকারি দলিলের উল্লেখ করে ওইসব তারিখ সামনে তুলে ধরে ওই পত্রিকা। ফলে পত্রিকাটির বিরুদ্ধে এমন সমন জারিকে সংবাদ মাধ্যমের ওপর হামলা বলে কড়া নিন্দা হয়। এ নিয়ে মামলাটি যখন নিজেই পরিচালনা করা ঘোষণা দেন তিনি তখন ক্ষোভটা আরো বেড়ে যায়। জানুয়ারিতে এই বিচারপতিই নেপালে সুপরিচিত অর্থপেডিস্কের একজন সার্জন ডা. গোবিন্দ কেসি’র বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। ডা. গোবিন্দ দুর্নীতির বিরোধী একজন অধিকারকর্মী।

 তার অপরাধ তিনিও প্রধান বিচারপতির জন্ম তারিখ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন। গত জুনে প্রধান বিচারপতি পদে আসীন হন গোপাল পারাজুলি। তার আগে বয়স ৬৫ বছর হওয়ার কারণে এ পদটি ছেড়ে দেন নেপালে প্রথম নারী প্রধান বিচারপতি সুশীলা কারকি। 

 
 
 
তিন কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করলেন বিপ্লব দেব
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সাধারণ মানুষের আশা-আকাঙ্খা আর চাহিদা পূরণের কথা মাথায় রেখেই ক্ষমতায় বসতে হয়েছে তাকে। তাই মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর সেসব কথা একদমই ভোলেননি। সাংবাদিক হত্যায় সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছিলেন বিপ্লব দেব। এবার দায়িত্বে গাফিলতির দায়ে বরখাস্ত করলেন তিন প্রশাসনিক কর্মকর্তাকে। এদের মধ্যে একজন ব্লক ডেভলেপমেন্ট অফিসারও রয়েছেন।

ত্রিপুরায় দীর্ঘ আড়াই দশকের লাল দুর্গে ফাটল ধরিয়েছে পদ্ম শিবির। ভোটের অঙ্ক আলাদা। সেখানে অন্য রাজনীতি। কিন্তু ক্ষমতায় আসার পর মানুষের হয়ে কাজ করাই যে মুখ্য, এই শিক্ষা থেকে দূরে সরে যাননি নতুন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি খুব ভাল করেই জানেন, বিদায়ী মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারের প্রতি মানুষের শ্রদ্ধা অটুট ছিল। কিন্তু সামগ্রিকভাবে বাম শাসনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল ত্রিপুরার বেশিরভাগ মানুষ।

 

দীর্ঘদিন ক্ষমতায় থাকলে যে শ্যাওলা জমে প্রশাসনে, এখানেও তা হয়েছিল বলে মনে করেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। এছাড়া উপজাতি সম্প্রদায়ের মানুষের সঙ্গে বামদের দূরত্ব বেড়েছিল বলেও মনে করা হচ্ছে। সেই ক্ষোভই চালিত হয়েছে ভোটবাক্সে। সুতরাং এখন মানুষের ক্ষোভ মেটানো ও চাহিদা পূরণই যে তার আশু কর্তব্য তা ভালই জানেন বিপ্লব দেব।

শুরুতেই তাই চাহিদা মেনে দুই সাংবাদিক হত্যায় সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। প্রয়োজনীয় আইনি দিক খতিয়ে দেখার কথাও জানিয়েছেন। কর্মচারীদের বেতন বাড়ানোরও পরিকল্পনা নিয়েছেন। তবে সেখানেই শেষ নয়। আরও বৈপ্লবিক পদক্ষেপের দিকে হাঁটলেন মুখ্যমন্ত্রী।

উত্তর ত্রিপুরায় বেশ কয়েকটি অঞ্চলে সারপ্রাইজ ভিজিটে গিয়েই চমকে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। কোথায় কী কাজ হচ্ছে তা খতিয়ে দেখছিলেন। তখনই বুঝতে পারেন কেন্দ্রীয় বরাদ্দই হয়েছে। কোথাও কোনও কাজ হয়নি। এমনকি রাস্তা সারানোর কাজও হয়নি। এরপরই প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ বিপ্লব দেব তিন প্রশাসনিক কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করার সিদ্ধান্ত নেন।

 

স্টিফেন হকিং মারা গেছেন
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : পদার্থবিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং মারা গেছেন। পরিবারের তরফ থেকে ৭৬ বছর বয়সী এই বিজ্ঞানীর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। চলতি বছরই ৭৬তম জন্মদিন পালন করেছিলেন এই বিজ্ঞানী। বিরল ‘মোটর নিউরন’ রোগে আক্রান্ত ছিলেন তিনি। পৃথিবীর অস্তিত্ব ও বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে বিভিন্ন তথ্য দিয়েছেন এই পদার্থ বিজ্ঞানী। খবর বিবিসি।

১৯৮৮ সালে প্রকাশিত হয়েছিল তার বই ‘আ ব্রিফ হিস্ট্রি অফ টাইম। মোটর নিউরন রোগে আক্রান্ত একজন ব্যক্তি সাধারণত রোগ ধরা পড়ার চার বছরের বেশি বাঁচেন না। হকিংয়ের এই রোগ ধরা পড়েছিল ১৯৬৩ সালে। অর্থাৎ তারপরও ৫৫ বছর বেঁচে থাকা মিরাকলের চেয়ে কম কিছু নয়। তবে আরও আশ্চর্য তার গবেষণা।

বিরল এই রোগে আক্রান্ত হয়েও যেভাবে তিনি বিশ্বের সৃষ্টি সন্ধানে নিয়োজিত ছিলেন তা পুরো বিশ্বের কাছেই বড় চমক। ব্রিটিশ এই বিজ্ঞানী কৃষ্ণ গহ্বর এবং আপেক্ষিকতা তত্ত্ব নিয়ে তার কাজের জন্য বিশ্বজুড়ে পরিচিত।

হকিং এর তিন সন্তান লুসি, রবার্ট এবং টিম বাবার মৃত্যুর খবরে জানিয়েছেন, আমরা দুঃখের সঙ্গে জানাচ্ছি যে আমাদের প্রিয় বাবা আজ মারা গেছেন। তিনি শুধু একজন বড় বিজ্ঞানীই ছিলেন না তিনি ছিলেন একজন অসাধারণ মানুষ, যার কাজ বহু বছর বেঁচে থাকবে। শুধু বিজ্ঞানী হিসেবেই নয়, প্রতিবন্ধকতাকে পেরিয়ে কিভাবে সেরা হওয়া যায় তিনি ছিলেন তার অন্যতম উদাহরণ।

 

নেপালে ইউএস-বাংলার বিমান বিধ্বস্ত : ৫০ যাত্রীর প্রাণহানির শঙ্কা
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে (টিআইএ) ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের যাত্রীবাহী একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়েছে। সোমবার নেপালের স্থানীয় সময় দুপুর ২টা ২০ মিনিটে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে।

নেপালের স্থানীয় দৈনিক দ্য হিমালয় টাইমস বলছে, বিমান বিধ্বস্তের এ ঘটনায় প্রাণহানির শঙ্কা প্রকাশ করেছে টিআইএ।

বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ বলছে, ৭৮ যাত্রীবাহী পুড়ে যাওয়া বিমানটির ৫০ যাত্রীর ভাগ্যে কী ঘটেছে তা এখনো জানা যায়নি।

নেপালের পর্যটন মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব সুরেশ আচার্য বলেছেন, বিধ্বস্ত বিমানের ভেতর থেকে ১৭ যাত্রীকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের মুখপাত্র প্রেম নাথ ঠাকুর বলেছেন, রানওয়েতে অবতরণের চেষ্টার সময় বিমানটিতে আগুন ধরে যায়। পরে বিমানবন্দরের পাশের একটি ফুটবল মাঠে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়।

ইউএস-বাংলার এস২-এজিইউ বিমানটি ঢাকা থেকে উড্ডয়নের পর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দুপুর ২টা ২০ মিনিটে পৌঁছায়।

নেপাল সেনাবাহিনী ও উদ্ধারকারী টিমের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার অভিযান শুরু করেছে। যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ।

 

 

নেপালে ইউএস বাংলার বিমান বিধ্বস্ত
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : নেপালের কাঠমান্ডু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ইউএস বাংলার একটি ফ্লাইট বিধ্বস্ত হয়েছে।

কাঠমান্ডু পোস্টের প্রতিবেদনের সূত্রে দিয়ে বিবিসি এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে।

ত্রিভুবন ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টের পূর্ব দিকে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

ঘটনায় নিহত বা আহত হয়েছেন কতজন সে সম্পর্কে কিছু উল্লেখ করা হয়নি প্রতিবেদনে।

 

তিস্তা চুক্তি : মমতাকে রাজি করানোর চেষ্টায় নয়াদিল্লি
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সঙ্গে নয়াদিল্লিতে বৈঠক করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। রোববার রাজধানী নয়াদিল্লিতে ইন্টারন্যাশনাল সোলার অ্যালায়েন্সের (আইএসএ) সম্মেলনের ফাঁকে রাষ্ট্রপতি ভবনে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৈঠকে দীর্ঘদিন ধরে ঝুলে থাকা তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তিতে ব্যাপারে নরেন্দ্র মোদিকে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ অবগত করেছেন বলে জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব মো. জয়নাল আবেদীন। তবে তিস্তার পানিবন্টন চুক্তির ব্যাপারে সব ধরনের প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে বলে ভারতের প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন।

টুইটারে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় বলছে, দুই দেশের নেতার মাঝে ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে। টুইটে বলা হয়, ‘নয়াদিল্লিতে আইএসএ সম্মেলনের ফাঁকে অনুষ্ঠিত বৈঠকে ফলপ্রসূ আলোচনা করেছেন বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট আবদুল হামিদ ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।’

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কার্যালয়ের মুখপাত্র রবিশ কুমার টুইটারে বলেন, ঘনিষ্ঠ বন্ধু ও প্রতিবেশির সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক সুদৃঢ় হচ্ছে। আইএসএ সম্মেলনের ফাঁকে প্রধানমন্ত্রী মোদি ও বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট দুই দেশের পারস্পরিক সম্পর্ক, উন্নয়ন সহযোগিতা ও অন্যান্য বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করেছেন।

তিস্তার ৩৩ হাজার কিউসেক পানি বাংলাদেশকে দেয়ার শর্তে ২০ বছরেরও বেশি সময় ধরে যে দরকষাকষি চলছে তাতে আপত্তি জানিয়ে আসছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি বলেছেন, এর ফলে রাজ্যের উত্তরাঞ্চলে ভোগান্তি শুরু হবে। রাজ্য সরকার মনে করে, কুচবিহার, জলপাইগুড়ি, দার্জিলিং এবং উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুরে এ চুক্তির ফলে হুমকির মুখে পড়বে।

এর আগে ২০১১ সালে মনমোহনের ঢাকা সফরে এ চুক্তি স্বাক্ষর চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছালেও একেবারে শেষ মুহূর্তে তা বাতিল হয়ে যায়। মমতা ব্যানার্জি ওই সফরে আসার কথা থাকলেও ঢাকা সফর থেকে বিরত থাকেন তিনি। এ সময় মমতা বলেন, তিস্তা চুক্তির যে শর্ত আছে তা রাজ্যের জন্য ক্ষতিকর।

গত বছরের এপ্রিলে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার দিল্লি সফরেও প্রতিবেশী দেশকে তিস্তার পানির বদলে বিকল্প প্রস্তাব দেন মমতা। গত ৮ এপ্রিল সকালে হাসিনা ও মমতাকে পাশে রেখে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তিস্তা চুক্তি দ্রুত বাস্তবায়নের আশ্বাস দেয়ার পর ওইদিন রাতেই বিকল্প প্রস্তাব দেন মমতা।

ওই সময় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জানান, ‘বাংলাদেশের সঙ্গে তিস্তা পানি বণ্টনের বিষয় খুব শিগগির এবং সর্বসম্মতিক্রমে সমাধান করা হবে’। কিন্তু রাতেই সেই সুর কাটে। ওইদিন দুপরেই শেখ হাসিনার সঙ্গে একান্ত বৈঠকে বসেন মমতা ব্যানার্জি।

রোববারও রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তিস্তা পানিবন্টন চুক্তির ব্যাপারে বলেছেন, আমরা পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীকে আলোচনার টেবিলে বসাতে এখনো চেষ্টা করে যাচ্ছি।

 

আসামে প্রতিবাদের মুখে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতের আসাম রাজ্য সফরে গিয়ে ভারতীয় শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদের মুখে পড়েছেন বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ। আসাম থেকে অবৈধ বাংলাদেশি অভিবাসীদের ফিরিয়ে নেয়ার দাবিতে তারা ওই প্রতিবাদ করেছেন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম নাগাল্যান্ড পোস্টের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আসামে অবৈধ বাংলাদেশি অভিবাসীদের শনাক্ত করতে রাজ্য সরকার এনআরসি কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে। অভিবাসীদের বাংলাদেশে ফেরত পাঠানোর ব্যাপারটি চলমান ইস্যু।

এর মাঝেই বৃহস্পতিবার আসামে পৌঁছেছেন বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ। আসাম থেকে বাংলাদেশিদের ফিরিয়ে নেয়ার দাবি জানাতে প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করেছে হিন্দু যুব ছাত্র পরিষদ।

টেলিগ্রাফ ইন্ডিয়া বলছে, দেশটির উত্তর-পূর্বাঞ্চলের এই রাজ্যের তাজ এলাকার হোটেল ভিভানতায় উঠেছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ। হিন্দু যুব ছাত্র পরিষদ হোটেলটির সামনে প্রতিবাদ কর্মসূচি শুরু করেছে।

হিন্দু যুব ছাত্র পরিষদের এক নেতা টেলিগ্রাফ ইন্ডিয়াকে বলেন, ‘আসামে অবৈধভাবে বসবাসকারী ৭ লাখ অভিবাসীকে ফেরত নেয়া উচিত বাংলাদেশের। একই সঙ্গে দখলকৃত আসামের জমিও ফেরত দেয়া উচিত। অন্যথায় তার এই সফর অর্থহীন।

ভারতবিরোধী চীন এবং পাকিস্তানিদের বাংলাদেশ আশ্রয় দিচ্ছে বলেও অভিযোগ করেছে আসামের এই ছাত্র সংগঠনের নেতারা। আসামের বিভিন্ন ধরনের সংগঠন সেখান থেকে বাংলাদেশিদের শনাক্ত করে ফেরত পাঠানোর দাবি জানিয়ে আসছে দীর্ঘদিন ধরে। কিন্তু প্রত্যাবাসন চুক্তির অভাবে এই প্রক্রিয়া বাধাগ্রস্ত হচ্ছে।

২০১৬ সালের ১ এপ্রিল থেকে গত বছরের ৩১ মার্চ পর্যন্ত প্রায় ৩১ বাংলাদেশিকে আসাম থেকে ফেরত পাঠানো হয়।

 

বিজেপিকে ঠেকাতে কৌশলী মমতা
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপিকে ঠেকাতে কংগ্রেসকে পাশে চাইছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। শুক্রবার রাজ্যসভা নির্বাচনের প্রার্থী ঘোষণায় সেই আভাস দিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের প্রধান।

জি নিউজের খবর, পশ্চিমবঙ্গে রাজ্যসভার পাঁচটি আসনের মধ্যে চারটি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে তৃণমূল কংগ্রেস এবং একটি আসনে কংগ্রেস প্রার্থীকে সমর্থন করবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন মমতা।

এদিকে, মমতার এই ঘোষণার পর রাজনৈতিক মহল জোর গুঞ্জন ২০১৯ সালে বিজেপি বিরোধীজোটের পথ সুগম করতেই এই সিদ্ধান্ত নিলেন মমতা। একই সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীকে বিরোধী জোটে রাখতে কংগ্রেসের হাইকম্যান্ডও আগ্রহী বলে সূত্র জানিয়েছে। 

 

বসছেন ট্রাম্প ও কিম জং উন
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে দেখা করার আমন্ত্রণ জানিয়েছেন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন। ট্রাম্প বলছেন, ওই প্রস্তাব তিনি ফিরিয়ে দিচ্ছেন না।

ওয়াশিংটনে দক্ষিণ কোরিয়ার শীর্ষ নেতারা এ ঘোষণা দিয়েছেন, তারা উত্তর কোরিয়ার নেতার একটি চিঠিও হস্তান্তর করেছেন।

তারা বলছেন, উত্তর কোরিয়া ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা বন্ধ রাখতে সম্মত হয়েছে ও পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের বিষয়ে সম্মত।

পরমাণু ও উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা ইস্যুতে গেল কয়েকমাস ধরে যুক্তরাষ্ট্র ও দেশটি একে অপরকে হুমকি-পাল্টা হুমকি দিয়ে আসছিল।

এরআগে চলতি সপ্তাহের শুরুতে কিম জং উনের সঙ্গে বৈঠকে বসেন দক্ষিণ কোরিয়ার একটি প্রতিনিধি দল। ওই বৈঠককে নজিরবিহীন বলে আখ্যায়িত করা হচ্ছে। উনের সঙ্গে বৈঠকের পর প্রতিনিধি দলটি যুক্তরাষ্ট্র সফর করছে, বৈঠকের বিষয়ে বিস্তারিত জানাতে।

ডোনাল্ড ট্রাম্প এখন বিষয়টিকে বড় ধরনের অগ্রগতি বললেও এর আগে বলেছিলেন উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে আলোচনার কোনো যৌক্তিকতা নেই।

কিন্তু শক্ত কোনো চুক্তিতে না পৌঁছানো পর্যন্ত আরোপিত নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকবে বলেও ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে দেখা করে বেরিয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা চুং ইউই-ইয়ং এ পর্যায়ে পৌঁছানোর কৃতিত্ব ট্রাম্পকে দেন।

চুং সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, আমি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে বলেছি, কিম জং-উনের সঙ্গে বৈঠকে তিনি পরমাণু নিরস্ত্রীকরণে অঙ্গীকারবদ্ধ। কিম প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ফের কোনো ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা থেকে বিরত থাকবে উত্তর কোরিয়া।

তিনি আরও বলেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বিষয়টির প্রশংসা করেছেন পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছাতে মে মাসে কিমের সঙ্গে দেখা করবেন।

আন্তর্জাতিক আইন অমান্য করে পরমাণু অস্ত্র তৈরির চেষ্টা চালিয়ে যাওয়া ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগে কয়েক দশক ধরে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে একঘরে উত্তর কোরিয়া। 

ক্ষমতার থাকা অবস্থায় এরআগে যুক্তরাষ্ট্রের কোনা প্রেসিডেন্ট উত্তর কোরিয়ার কোনো নেতার সঙ্গে বসেননি।

তবে উত্তর কোরিয়া যেসব প্রতিশ্রুতি দিচ্ছে তার বিনিময়ে দেশটি কী চাচ্ছে সে বিষয়টি এখনো স্পষ্ট নয়।

 

মানবাধিকার পদক হারালেন সু চি
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : মিয়ানমারের রাখাইনে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর নিপীড়নের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ব্যর্থ হওয়ায় দেশটির নেত্রী ও রাষ্ট্রীয় উপদেষ্টা অং সান সু চিকে দেয়া সম্মানসূচক মানবাধিকার পদক প্রত্যাহার করে নিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের হলোকাস্ট মেমোরিয়াল মিউজিয়াম।

বুধবার হলোকাস্ট মেমোরিয়াল মিউজিয়াম এক ঘোষণায় বলছে, ২০১২ সালে সু চিকে দেয়া ‘এলি ওয়াইসেল’ পদক বাতিল করা হবে।

মিউজিয়ামের কর্মকর্তারা বলেছেন, ‘রাখাইনে রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিরুদ্ধে সংঘটিত গণহত্যার নিন্দা না জানানোয় সু চিকে দেয়া সম্মাননা প্রত্যাহার করে নেয়া হচ্ছে।’

সু চিকে মিয়ানমারের ম্যান্ডেলা হিসেবে মনে করা হয়; যিনি সেনা শাসন বিরোধিতা করায় দীর্ঘদিন গৃহবন্দি ছিলেন। তার ওই লড়াইয়ের জন্য শিগগিরই গণতান্ত্রিক নেত্রী হিসেবে বিশ্বে পরিচিত পান। পরে ১৯৯১ সালে শান্তিতে নোবেল জয় করেন মিয়ানমারের এ নেত্রী।

২০১৫ সালে সু চি নেতৃত্বাধীন রাজনৈতিক দল ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্রেসি (এনএলডি) দেশটির জাতীয় নির্বাচনে ভূমিধস জয় লাভ করে। নির্বাচনের পর দেশটির স্টেট কাউন্সিলর হিসেবে দায়িত্ব নেন তিনি।

কিন্তু সু চির সব খ্যাতি নিমিষেই হাওয়ায় মিশতে থাকে ক্ষমতায় আসার পর। গত বছরের আগস্টে রাখাইনে দেশটির সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিরুদ্ধে সেনাবাহিনীর নৃশংস অভিযানে গণহত্যা, গণধর্ষণ ও জ্বালাও-পোড়াওয়ের অভিযোগ ওঠে। এ অভিযান ঘিরে আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েন সু চি।

এদিকে, হলোকাস্ট মিউজিয়াম কর্তৃপক্ষ সু চিকে দেয়া সম্মাননা ফিরিয়ে নেয়ার ঘোষণা দেয়ার পর প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে মিয়ানমার। যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত মিয়ানমার দূতাবাস বলছে, পদক প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানটিকে ভুল বোঝানো হয়েছে।

গত বছরের ২৫ আগস্ট রাখাইনে সহিংসতা শুরুর পর প্রায় সাত লাখ সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিম বাংলাদেশে পালিয়েছে। তারা সেখানে সেনাবাহিনী ও উগ্রপন্থী বৌদ্ধদের হাতে ধর্ষণ, হত্যা, অগ্নিসংযোগের মতো ভয়াবহ নিপীড়নের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ করছেন।

 

নারী দিবসে যাকে স্মরণ করলেন মোদি
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক  : আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষ্যে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এক নারীকে স্মরণ করেছেন। ওই নারীই নাকি প্রধানমন্ত্রীর অনুপ্রেরণা। বৃহস্পতিবার এক টুইটে ১০৬ বছরের এক বৃদ্ধার কথা স্মরণ করে মোদি জানিয়েছেন, ওই বৃদ্ধা তাকে অনুপ্রাণিত করেন। শুধু তাই নয় মোদি তার টুইটে অন্যদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘যে সব নারী আপনার জীবনের অনুপ্রেরণা তাদের কথা লিখে জানান। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়া।

মোদি যে বৃদ্ধার কথা টুইটারে লিখেছেন তিনি হলেন কুনওয়ার বাই। যিনি ছত্তিশগড়ের বাসিন্দা। কুনওয়ার বাই নিজের ছাগল বিক্রি করে সেই টাকা দিয়ে গ্রামের জন্য একটি টয়লেট তৈরি করেন। এটাই গ্রামের প্রথম টয়লেট যা তৈরি হয় মাত্র ১৫ দিনে। এর জন্য খরচ হয়েছে ২২ হাজার টাকা। মোদি টুইটে বলেন, স্বচ্ছ ভারত মিশনে তার এই অবদান ভোলার নয়।

মোদি বলেন, তার এই আর্দশ চিন্তাধারা আমাকে গভীরভাবে অনুপ্রাণিত করেছে। ছত্তিশগড় সফরের সময় আমি কুনওয়ার বাইয়ের আর্শীবাদ পাওয়ার সুযোগ পেয়েছি। সেই সময়টা আমি সর্বদা মনে রাখব।

চলতি বছরের গোড়াতেই মৃত্যু হয় কুনওয়ার বাইয়ের। প্রধানমন্ত্রী জানান, তিনি সবসময় হৃদয়ে থাকবেন এবং স্বচ্ছ ভারতের স্বপ্নের জন্য যারা প্রাণপণ লড়ে যাচ্ছেন তাদেরকেও সালাম জানান মোদি। আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষ্যে নরেন্দ্র মোদি রাজস্থান সফর করছেন। সেখানে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তিনি আলোচনা করবেন। যার মধ্যে রয়েছে ‘বেটি বাঁচাও, বেটি পড়াও’ মিশন।

 

জরুরি অবস্থার মধ্যেও শ্রীলঙ্কায় সহিংসতা অব্যাহত
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সাম্প্রদায়িক সহিংসতার জেরে শ্রীলঙ্কায় ১০ দিনের জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। তবে জরুরি অবস্থার মধ্যেও সেখানে সহিংসতা অব্যাহত রয়েছে। সোমবার ক্যান্ডি শহরে মুসলিমদের বেশ কিছু দোকান-পাট ও মসজিদে হামলা চালানো হয়। খবর আল জাজিরা।

দেশের বিভিন্ন অংশে সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় জরুরি অবস্থা জারি করা হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ক্যান্ডি শহরে সেনাবাহিনী ও পুলিশের এলিট সদস্যদের মোতায়েন করা হয়।

গত মাসে দেশটির পূর্বাঞ্চলে মুসলিমদের একটি মসজিদ ও বেশ কিছু দোকানে হামলা চালায় উগ্রপন্থী বৌদ্ধরা। এতে অন্তত পাঁচজন আহত হয়। ২০১৪ সালের জুনে মুসলিমবিরোধী প্রচারণার জেরে দেশটিতে প্রাণঘাতী আলুথগামা দাঙ্গার ঘটনা ঘটে।

গত বছর দেশটির সংখ্যালঘু মুসলিমদের বিরুদ্ধে অন্তত ২০টি হামলার ঘটনা ঘটে। ওই সময় বিশ্বের বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকরা সংখ্যালঘু মুসলিমদের অধিকার ও ধর্মীয় স্বাধীনতা নিশ্চিত করতে শ্রীলঙ্কার সরকারের প্রতি আহ্বান জানায়।

পাহাড়ি শহর ক্যান্ডির মাদাওয়ালার এক বাসিন্দা জানিয়েছেন, প্রেসিডেন্ট মাইথিরিপালা সিরিসেনা ওই এলাকায় জরুরি অবস্থা এবং কারফিউ জারির পরেই তিনি বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টায় একটি দোকান পুড়ে যেতে দেখেছেন।

মোহাম্মদ মানাজির নামের ওই বাসিন্দা আল জাজিরাকে বলেন, আমি একটি ভবনে আগুন লাগতে দেখেছি। কি ঘটেছে সেটা দেখার জন্য বাইরে বেরুতেই দেখি ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড। তিনি বলেন, যে দোকানে আগুন লাগানো হয়েছে সেটি একটি মুসলিম বাসিন্দার দোকান।

মানাজির বলেন, মাদাওয়ালায় আর কোনও বড় ধরনের ঘটনা ঘটেনি। পুলিশ ও সেনাবাহিনী ওই এলাকার পুরো নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে। দমকল বাহিনীর লোকজন আগুন নেভাতে সক্ষম হয়েছে।

স্থানীয় একটি সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, দাঙ্গাকারীরা ক্যান্ডির উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় ওয়াত্তেগামা গ্রামের একটি মসজিদে হামলা চালিয়েছে।

 

রাশিয়ার সামরিক বিমান বিধ্বস্ত, নিহত ৩২
                                  

অনলাইন ডেস্ক: রাশিয়ার একটি সামরিক পরিবহন বিমান বিধ্বস্ত হয়ে অন্তত ৩২ জন নিহত হয়েছে। সিরিয়ার মেইমিম বিমানঘাঁটিতে অবতরণের সময় রুশ এই বিমান বিধ্বস্ত হয়েছে।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে, বিধ্বস্ত বিমানের ২৬ যাত্রী ও ৬ জন ক্রু নিহত হয়েছে। যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে বলে প্রাথমিক তথ্যে জানা গেছে।

মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, মস্কোর স্থানীয় সময় বিকেল ৩টার দিকে ওই দুর্ঘটনা ঘটেছে। সিরিয়ার মেইমিম বিমানঘাঁটিতে অবতরণের সময় রাশিয়ার এএন-২৬ মালবাহী সামরিক বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে।

দুর্ঘটনায় বিমানের সব আরোহীর প্রাণহানি ঘটেছে বলে বিবৃতিতে নিশ্চিত করা হয়েছে। অবতরণের আগে রানওয়ে থেকে ৫০০ মিটার দূরে বিমানটি আঁছড়ে পড়ে। তবে দুর্ঘটনার আগে বিমানটিতে আগুন ধরেনি বলে রুশ সেনাবাহিনী জানিয়েছে।

মুসলিম-বৌদ্ধ সংঘাতের পর শ্রীলঙ্কায় জরুরি অবস্থা
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সাম্প্রদায়িক সহিংসতার জেরে শ্রীলঙ্কায় ১০ দিনের জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। মঙ্গলবার দেশটির সরকারি একজন মুখপাত্র বলেছেন, সহিংসতায় উস্কানিদাতাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার লক্ষ্যে এ জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে।

বাতাসংস্থা রয়টার্স বলছে, ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলের দেশটির ক্যান্ডি জেলায় সোমবার বৌদ্ধ ও মুসলিমদের মধ্যে সাম্প্রদায়িক সহিংসতা ছড়িয়ে পরে।

গত বছর থেকে দুই সম্প্রদায়ের মধ্যে নতুন করে উত্তেজনা বৃদ্ধি পেয়েছে। বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের জোর করে ইসলামে ধর্মান্তরিত করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে দেশটির উগ্রপন্থী বৌদ্ধ গোষ্ঠীগুলো। একই সঙ্গে বৌদ্ধদের বিভিন্ন প্রত্নতাত্ত্বিক বিভিন্ন নিদর্শন ধ্বংসেরও অভিযোগ আনা হয়েছে মুসলিমদের বিরুদ্ধে।

এছাড়া কিছু সংখ্যক উগ্রপন্থী বৌদ্ধ শ্রীলঙ্কায় মিয়ানমারের সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিম আশ্রয় প্রার্থীর উপস্থিতির প্রতিবাদ করছে। শ্রীলঙ্কায় কট্টরপন্থী বৌদ্ধ জাতীয়তাবাদ বৃদ্ধি পেয়েছে।

সরকারি মুখপাত্র দয়াসিরি জয়াসেকারা রয়টার্সকে বলেন, ‘দেশের অন্যান্য অঞ্চলে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার বিস্তার ঠেকানোর লক্ষ্যে মন্ত্রিসভার বিশেষ বৈঠকে ১০ দিনের জরুরি অবস্থা জারির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। 

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উস্কানিমূলক পোস্টের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার ইঙ্গিত দিয়ে তিনি বলেন, ‘ফেসবুক ব্যবহার করে যারা সহিংসতায় উস্কানি দিচ্ছে তাদের বিরুদ্ধেও কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

সোমবার ক্যান্ডি শহরে মুসলিমদের বেশ কিছু দোকান-পাট ও স্থাপনায় অগ্নিসংযোগ করে বৌদ্ধরা। এর জেরে সেখানে কারফিউ জারি করা হয়। পরে এই সহিংসতা দেশের অন্যান্য অংশে ছড়িয়ে পড়তে পারে এমন শঙ্কায় জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ক্যান্ডি শহরে সেনাবাহিনী ও পুলিশের এলিট সদস্যদের মোতায়েন করা হয়েছে।

গত মাসে দেশটির পূর্বাঞ্চলে মুসলিমদের একটি মসজিদ ও বেশ কিছু দোকানে হামলা চালায় উগ্রপন্থী বৌদ্ধরা। এতে অন্তত পাঁচজন আহত হয়। ২০১৪ সালের জুনে মুসলিমবিরোধী প্রচারণার জেরে দেশটিতে প্রাণঘাতী আলুথগামা দাঙ্গার ঘটনা ঘটে।

গত বছর দেশটির সংখ্যালঘু মুসলিমদের বিরুদ্ধে অন্তত ২০টি হামলার ঘটনা ঘটে। ওই সময় বিশ্বের বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকরা সংখ্যালঘু মুসলিমদের অধিকার ও ধর্মীয় স্বাধীনতা নিশ্চিত করতে শ্রীলঙ্কার সরকারের প্রতি আহ্বান জানায়।

শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট মাইথিরিপালা সিরিসেনা ও প্রধানমন্ত্রী রনিল বীক্রমাসিংহ সংখ্যালঘুদের সুরক্ষা নিশ্চিত করার অঙ্গীকার করেন। তবে সরকারি ওই প্রতিশ্রুতির পরও দেশটির সংখ্যালঘুদের ওপর হামলার ঘটনা বন্ধ হয়নি।

২ কোটি ১০ লাখ মানুষের দেশ শ্রীলঙ্কায় মুসলিম রয়েছে প্রায় ৯ শতাংশ। এছাড়া বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী ৭০ ও হিন্দু ধর্মের অনুসারী আছে ১৩ শতাংশ।

 

বাংলাদেশি শ্রমিক নিয়োগে ফের কুয়েতের নিষেধাজ্ঞা
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বাংলাদেশি শ্রমিক নিয়োগের ওপর ফের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে আরব উপসাগরীয় অঞ্চলের উত্তরের দেশ কুয়েত। দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেইখ খালিদ আল জাররাহ সোমবার বাংলাদেশি শ্রমিক নিয়োগের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘোষণা দিয়েছেন।

একই সঙ্গে এ নিষেধাজ্ঞা বাস্তবায়নে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়ার জন্য মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। দেশটির নিরাপত্তা সংক্রান্ত একটি সূত্রের বরাত দিয়ে সোমবার কুয়েতের আরবি ভাষার স্থানীয় দৈনিক আল-জারিদা (Al Jareeda) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

ওই সূত্র বলছে, কর্মক্ষেত্রে বাংলাদেশিদের আবাসন পারমিটে অনিয়ম ও পাচারকারীদের অপব্যবহার এবং দৌরাত্ম বৃদ্ধি পাওয়ায় শ্রমিক নিয়োগে নিষেধাজ্ঞা আরোপের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সম্প্রতি বাংলাদেশি শ্রমিক নিয়োগে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নেয় কুয়েত। এর পরপরই এই অনিয়মের পরিমাণ ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে।

কুয়েতের নিরাপত্তা সংস্থার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিদ্যমান কঠোর নীতিমালা থাকা সত্ত্বেও গৃহকর্মী নিয়োগের ক্ষেত্রে অনিয়ম ঘটছে। সংস্থাটির দেয়া এ প্রতিবেদনের জেরে ফের বাংলাদেশি শ্রমিক নিয়োগে নিষেধাজ্ঞা আরোপের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কুয়েত।

একটি জটিল প্রক্রিয়ার মাধ্যমে আরব উপসাগরীয় অঞ্চলের এই দেশটিতে বাংলাদেশি শ্রমিকদের নিয়োগ দেয়া হয়। এই নিয়োগ প্রক্রিয়ায় ব্যক্তিগত অ্যাজেন্ট, দালালরাও জড়িয়ে থাকে। ফলে কেউ কেউ অনেক সময় প্রতারণার শিকার হন।

বাংলাদেশ জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর পরিসংখ্যান বলছে, ১৯৭৬ সালে বাংলাদেশ থেকে শ্রমিক নিয়োগ শুরু করে কুয়েত; যা ২০০৭ সাল পর্যন্ত অব্যাহত ছিল। এ সময়ের মধ্যে মধ্যপ্রাচ্যের এই দেশটিতে কমপক্ষে ৪ লাখ ৮০ হাজার বাংলাদেশি কর্মে যোগ দিয়েছে।

নিয়োগ প্রক্রিয়ায় অনিয়ম ও দেশটিতে পাড়ি জমানোর পর অবৈধ কাজে জড়িয়ে পড়ার অভিযোগে ২০০৭ সালে বাংলাদেশ থেকে শ্রমিক নিয়োগ বন্ধ করে কুয়েত। ২০১৪ সালে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে আবারো বাংলাদেশি শ্রমিক নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেয় দেশটি।

২০১৬ সালের মে মাসে গোয়েন্দা প্রতিবেদনে অনিয়মের তথ্য উঠে আসার পর আবারো বাংলাদেশে থেকে পুরুষ গৃহকর্মী নিয়োগের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে কুয়েত।

পরে কুয়েত সরকার দেশটির নাগরিকদের বিদেশি শ্রকি নিয়োগে নতুন শর্ত আরোপ করে। ওই সময় বলা হয়, প্রত্যেক কুয়েতি নাগরিক যদি কোনো দেশের একজন পুরুষ গৃহকর্মী নিযুক্ত রাখেন; তাহলে ওই দেশের আর কোনো শ্রমিককে নিয়োগ দিতে পারবেন না।

নতুন শর্তে বলা হয়, নিয়োগদাতার অবশ্যই নিজস্ব বাড়ি থাকতে হবে কুয়েতে। ২০১৬ সালে কুয়েতে বাংলাদেশি শ্রমিকের সংখ্যা ছিল ২ লাখ।

 

 


   Page 1 of 3
     আমাদের পত্রিকা আন্তর্জাতিক
ফিলিপাইনে হোটেলে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ৪
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
নেপালের প্রধান বিচারপতি বরখাস্ত
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
তিন কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করলেন বিপ্লব দেব
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
স্টিফেন হকিং মারা গেছেন
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
নেপালে ইউএস-বাংলার বিমান বিধ্বস্ত : ৫০ যাত্রীর প্রাণহানির শঙ্কা
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
নেপালে ইউএস বাংলার বিমান বিধ্বস্ত
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
তিস্তা চুক্তি : মমতাকে রাজি করানোর চেষ্টায় নয়াদিল্লি
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
আসামে প্রতিবাদের মুখে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
বিজেপিকে ঠেকাতে কৌশলী মমতা
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
বসছেন ট্রাম্প ও কিম জং উন
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
মানবাধিকার পদক হারালেন সু চি
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
নারী দিবসে যাকে স্মরণ করলেন মোদি
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
জরুরি অবস্থার মধ্যেও শ্রীলঙ্কায় সহিংসতা অব্যাহত
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
রাশিয়ার সামরিক বিমান বিধ্বস্ত, নিহত ৩২
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
মুসলিম-বৌদ্ধ সংঘাতের পর শ্রীলঙ্কায় জরুরি অবস্থা
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
বাংলাদেশি শ্রমিক নিয়োগে ফের কুয়েতের নিষেধাজ্ঞা
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
আজানের সময় বক্তৃতা থেকে বিরত থাকলেন মোদি (ভিডিও)
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
ত্রিপুরায় জামানত হারিয়েছেন মমতার বেশিরভাগ প্রার্থী
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
ইউরোপে ভয়াবহ তুষারপাত : মৃতের সংখ্যা ৫৫
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
আবারও উত্তপ্ত বিতর্কিত চীন সাগর, প্রাচীর গড়ছে বেইজিং
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
ইউরোপা লিগে সমর্থকদের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে প্রাণ গেল পুলিশের
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
সিরীয় বাহিনীর বিমান হামলায় ২০ শিশুসহ নিহত ৭৭
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
শিশু জয়নবের ধর্ষকের মৃত্যুদণ্ড
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
সুইফটের নেটওয়ার্কে হ্যাকারদের হানা, রাশিয়ার ৬০ লাখ ডলার লুট
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
৭ মিনিটে ১৭ জনকে গুলি করে হত্যা!
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
দূতাবাসে হামলা : ব্রিটিশ সরকারের দিকে তাকিয়ে আওয়ামী লীগ
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
ফসল রক্ষায় জমিতে সানি লিওনের পোস্টার
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
মালদ্বীপে ভারত হস্তক্ষেপ করলে বসে থাকবে না চীন : গ্লোবাল টাইমস
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
সু চি-বরিস জনসনের সাক্ষাৎ, রোহিঙ্গা ফেরানোর আহ্বান
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
গ্রেফতার-আটক বন্ধ করতে বললো হিউম্যান রাইটস ওয়াচ
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
গাড়ি দুর্ঘটনায় আহত মোদির স্ত্রী
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
তাইওয়ানে শক্তিশালী ভূমিকম্প, নিহত ২
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
অর্ডার আইফোন, পেলেন সাবান!
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
মালদ্বীপের পার্লামেন্ট দখল নিয়েছে সেনাবাহিনী
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
‘কাতার আক্রমণ করতে চেয়েছিল সৌদি আমিরাত’
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
ইরানে হিজাব না পরায় ২৯ নারী গ্রেফতার
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
স্ত্রীকে হত্যার পর পাক মন্ত্রীর আত্মহত্যা
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
লন্ডনে মসজিদে হামলায় বাংলাদেশি খুন, ব্রিটিশের যাবজ্জীবন দণ্ড
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......
বিশ্বের প্রথম মহাকাশ হাসপাতাল বানাচ্ছে আরব আমিরাত
............ ...... ....... ....... ............................. .......................... ... .... ......