শেয়ার করুন
Share Button
   রাজনীতি
  আমাদের নেত্রী কোনো অপরাধ করেননি : নজরুল
  18, February, 2018, 7:32:2:PM

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, আমাদের নেত্রী কোনো অপরাধ করেননি। কোনো দুর্নীতির সম্পৃক্ত ছিলেন না। তাকে দুর্নীতির আইনে বিচারও করা হয়নি। ওরা (আওয়ামী লীগ) এতিমের টাকা মারার কথা বলে। আওয়ামী লীগ বরাবরই অপ্রচারে বিশ্বাস করে।

রোববার বিকেলে নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জাতীয়তাবাদী সামাজিক সংস্থা (জাসাস) আয়োজিত ‘বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও তার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে গণস্বাক্ষর’ কর্মসূচিতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, আওয়ামী লীগ প্রতিহিংসার রাজনীতি করে। তাতে বিএনপির কি ক্ষতি হয়েছে? বরং আওয়ামী লীগের প্রতিহিংসার কারণে দেশবাসীর কাছে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দেশনেত্রী থেকে ‘মা’ হয়ে গেছেন। তিনি এখন দেশের বিপুলসংখ্যক মানুষের কাছে সবচেয়ে বেশি শ্রদ্ধার পাত্র। মরণকালে নাকি সবকিছুই ভুল হয়ে যায়। এ সরকারের মনে হয় এমনটাই হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগ মনে করেছিল খালেদা জিয়াকে কারাগারে পাঠানোর পর বিএনপির নেতাকর্মীরা রাজপথে গাড়ি ভাঙচুর করবে। আর সেই সুযোগে সরকারি দলের নেতাকর্মীরা রাজপথে নাশকতা করবে গাড়িতে আগুন দেবে, আর দোষ দেবে বিএনপির। কিন্তু তাদের সেই স্বপ্ন পূরণ না হওয়ায় তারা প্রতিহিংসার আগুনে পুড়ছে।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির এ সদস্য বলেন, খালেদা জিয়া তিনবারের প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু বর্তমান সরকার তার সঙ্গে সঠিক আচরণ করেনি। তার প্রাপ্ত সম্মান তাকে দেয়নি। আমরা সরকারের এমন আচরণের তীব্র নিন্দা জানাই।

তিনি বলেন, মিথ্যা এ বানোয়াট মামলায় দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রীর সাজার ঘটনায় তারা (আওয়ামী লীগ) অনেকেই সমালোচনা করেছেন। সরকারের এমন প্রতিহিংসাপরায়ণ আচরণে মর্মাহত হয়েছেন।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি অধ্যাপন ড. মামুন আহমেদের সভাপতিত্বে গণস্বাক্ষর কর্মসূচিতে আরও বক্তব্য দেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, জাসাসের সাধারণ সম্পাদক চিত্রনায়ক হেলাল খান, সাংগঠনিক সম্পাদক খলনায়ক শিবা শানু প্রমুখ।

 



:        
   আপনার মতামত দিন
     রাজনীতি
পথশিশুদের খাইয়ে প্রেম উদযাপন, ভাইরাল প্রেমিক যুগল
................................................................
কে এই সুন্দরী ললনা?
................................................................
নাচো মন ফাগুনের অগ্নিধারায়
................................................................
ভালোবাসা দিবসে যা দেয়া যেতে পারে
................................................................
যে কারণে নারীদের কাছে বেশি আকর্ষণীয় বিবাহিত পুরুষ
................................................................