শেয়ার করুন
Share Button
   আন্তর্জাতিক
  অস্থিতিশীল ইরান: সিআইএ’র পরিকল্পনা, ইসরায়েলের সহায়তা, সৌদির অর্থায়ন!
  5, January, 2018, 8:12:19:PM

হঠাৎ অস্থির হয়ে উঠলো ইরান। মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে সাধারণ বিক্ষোভ হয়ে ওঠলো সহিংস। দ্রুত ছড়িয়ে পড়লো দেশব্যাপাী। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে গলদঘর্ম রুহানি প্রশাসন। ১৯৭৯ সালের ইসলামী বিপ্লবের পর এত বড় ও সহিংস বিক্ষোভ ইরানবাসী আর দেখেননি। আজ শুক্রবার পর্যন্ত মারা গেছেন অন্তত ২২ জন বিক্ষোভকারী। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে হিমশিম খাওয়া সরকারি নিরাপত্তা বাহিনীর সাথে সংঘর্ষে মারা যান এরা।

কিন্তু নিকট অতীতে রাজনৈতিকভাবে মোটামুটি শান্ত থাকা তেহরানের রাজপথ আকস্মিকভাবে এমন অস্থির হয়ে ওঠলো কেন? এর পেছনের কারণ কী? দেশটির প্রধান আইন কর্মকর্তার দাবি, এর পেছনে হাত রয়েছে বাইরের শক্তির।

আইন কর্মকর্তা মোহাম্মদ জাফর মোন্তাজারি জানান, যুক্তরাষ্ট্রের বৈদেশিক গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ গত চার বছর ধরে ইরানে সরকার উৎখাতের একটি প্রকল্প নিয়ে কাজ করছিলো। সিআইএ’র কাছে প্রকল্পটির নাম Consequential Convergence Doctrine. এটি বাস্তবায়নে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাকে সহায়তা করছিলো ইসরায়েলি গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের একটি দল। আর পুরো প্রক্রিয়ার অর্থায়নে আছে ইরানের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী সৌদি আরব।

বিক্ষোভের মাধ্যমে দেশব্যাপী অস্থিরতা তৈরি করে জোরপূর্বক সরকারকে উৎখাত করার পরিকল্পনা ছিল দেশ তিনটির- এমনটাই দাবি মোন্তাজারির।

তিনি বলেন, মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থার পরিকল্পনাতেই এই নৈরাজ্য তৈরি করা হয়। যাতে সহায়ক ছিলো ইসরায়েলি গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদ। আর অর্থায়নে ছিলো সৌদি আরব। যার মূল লক্ষ্য ছিলো ইরানকে লিবিয়া-তিউনিসিয়ার মতো ধ্বংস করে ফেলা।

তেহরানের এমন দাবির আগেই অবশ্য বিক্ষোভকারীদের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থনের কথা জানিয়ে তিন দিন আগে টুইট করেছিলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। এরই মধ্যে মধ্যপ্রাচ্যের একাধিক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয় ইরানের অস্থির পরিস্থিতিতে নেতানিয়াহু সরকারের ‘সন্তুষ্টি’র খবর।এদিকে বিক্ষোভকারীদের সমর্থন দেয়ায় বিশ্বনেতাদের তোপের মুখে পড়তে হয় যুক্তরাষ্ট্রকে। সহিংস পরিস্থিতির জন্য ওয়াশিংনটনকেও দায়ী করা হয়।

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রন বলেন, ‘সন্ত্রাসবাদ, পরমাণু অস্ত্র, বাণিজ্যসহ বিভিন্ন ইস্যুতে ইরানের সাথে যৌথভাবে কাজ করছে ইউরোপের বিভিন্ন দেশ। কারণ আমরা মনে করি শুধু আঞ্চলিক স্থিতিশীলতাই নয়, বিশ্ব শান্তির জন্য বড় ফ্যাক্টর ইরান। তাই যুক্তরাষ্ট্রসহ কোনো দেশের এমন মন্তব্য বা পদেক্ষেপ নেয়া উচিত নয়, যা এই স্থিতিশীলতাকে হুমকির দিকে ঠেলে দেয়।’

ভেনেজুয়েলা প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো বলেছেন, ‘শান্তিপূর্ণ ইরানকে অস্থিতিশীল করতে চায় যুক্তরাষ্ট্র। কারণ দেশটির লক্ষ্যই হলো বিশ্বব্যাপী আধিপত্য বিস্তার করা। তবে এই ষড়যন্ত্র কোনোভাবেই মানা হবে না, ইরানকে সমর্থন দেবে ভেনেজুয়েলা।’তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগানও ট্রাম্পের অবস্থানের সমালোচনা করে তেহরানের প্রতি সমর্থন ব্যক্ত করেন।

অপর দিকে অস্থিতিশীল পরিস্থিতির মধ্যেই ইরানের ওপর নতুন অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। ক্ষেপণাস্ত্র উন্নয়ন কর্মসূচি অব্যাহত রাখার অভিযোগ এনে ইরানের ৫ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়। দাবি করা হয়, পরমাণু অস্ত্র বহনে সক্ষম ক্ষেপণাস্ত্র তৈরী এবং উন্নয়নে জড়িত ছিলো প্রতিষ্ঠানগুলো; যা ইরানের সাথে ছয় পরাশক্তির হওয়া পরমাণু চুক্তির শর্ত লঙ্ঘনের শামিল।

 



:        
   আপনার মতামত দিন
     আন্তর্জাতিক
বাবার লাশ ও অসুস্থ মাকে নিয়ে এক তরুণের বাড়ি যাওয়ার মর্মান্তিক বর্ণনা
................................................................
বিশ্বাস হয়! এদের কেউ ছিলেন কুলি কেউ ড্রাইভার কেউ চোর…
................................................................
যা নেবেন ১৪০ টাকা
................................................................
পীরগঞ্জের একজন ব্যস্ত ইউএনও রায়হান !
................................................................
নগ্ন রেস্তোরাঁর পরে এবার নির্মিত হচ্ছে নগ্ন পার্ক!‌
................................................................
এক দেহে দুই আত্মা!
................................................................
কফি খেয়ে বেহুঁশ বানর
................................................................
ঢাকায় যানজট কমাতে ‘ট্রাফিক ফিচার’ চালু করলো গুগল
................................................................
নিজে নিজেই চলবে বাইক, চিনতে পারবে মালিককে (ভিডিও)
................................................................
শিক্ষার্থীদের স্কুলবাস দিন : বিত্তবানদের প্রতি প্রধানমন্ত্রী
................................................................
শতাব্দী পেল সাহসের পুরস্কার
................................................................
একটি সাহসী বইয়ের জয়জয়কার
................................................................
এসএসসির ফরম পূরণে অতিরিক্ত ফি ১২০৯ স্কুলকে শোকজ
................................................................
বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় সমাবর্তনে আনন্দ-উচ্ছ্বাস
................................................................
সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়স বাড়ানোর দাবিতে শাহবাগে অবস্থান
................................................................
নতুন প্রজন্মই ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণ করবে : শিক্ষামন্ত্রী
................................................................
নিজ খরচে ভারতে পড়তে যাওয়ার সুযোগ
................................................................
ভুয়া সনদপত্র তৈরি, এবিইউ’র ২ কর্মকর্তার কারাদণ্ড
................................................................
৫১ শিক্ষার্থীর অনশনের মধ্যেই রাবির আইন বিভাগের চূড়ান্ত পরীক্ষা
................................................................