শেয়ার করুন
Share Button
   বিশেষ সংবাদ
  রাজশাহীতে ছাত্রীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা, আইএইচটি বন্ধ
  6, December, 2017, 5:06:52:PM

রাজশাহী ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজিতে (আইএইচটি) ছাত্রীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি এড়াতে অনির্দিষ্টকালের জন্য আইএইচটি বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

বুধবার বেলা ১১টার দিকে কর্তৃপক্ষ এ ঘোষণা দেয়। দুপুর ১টার মধ্যে ছাত্রদের এবং বিকেল ৩টার মধ্যে ছাত্রীদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এর আগে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ছাত্রীনিবাসে নিরাপত্তার দাবিতে অধ্যক্ষের কক্ষের সামনে অবস্থান নেন ছাত্রীরা। একপর্যায়ে বিক্ষুব্ধ ছাত্রীরা অধ্যক্ষের কক্ষে প্রবেশ করে তাকে অবরুদ্ধ করেন। ওই সময় ছাত্রীদের অভিযোগ মিথ্যা দাবি করে বহিরাগতদের নিয়ে অবস্থান নেয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

পরে পুলিশ আন্দোলনরত ছাত্রীদের অধ্যক্ষের কক্ষ থেকে বের করে আনলে তাদের ওপর হামলা চালায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এতে চারজন ছাত্রী আহত হয়েছেন। তাদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (রামেক) ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় ক্যাম্পাসে উত্তেজনা ছড়ালে ক্যাম্পাস বন্ধ ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ।

আন্দোলনরত ছাত্রীরা জানান, গত ৩ ডিসেম্বর ক্যাম্পাসে মেডিকেল টেকনোলজিস্টদের কেন্দ্রীয় কর্মসূচি ছিল। তাতে কয়েকজন ছাত্রী যোগ দিতে পারেননি। ওই দিনই এনিয়ে ছাত্রলীগের নেতারা ছাত্রীনিবাসে অবৈধ অনুপ্রবেশ করে ছাত্রীদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন।

এক পর্যায়ে তারা ছাত্রীনিবাসের কলাপসিবল গেইট পর্যন্ত চলে যান। এর আগেও বিভিন্ন সময় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা অবাধে ছাত্রীনিবাসে প্রবেশ করতেন। ছাত্রী ও দর্শনার্থীদের নানাভাবে হয়রানি করতেন। এনিয়ে অভিযোগ পেয়েও তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছিলেন না অধ্যক্ষ। এ ঘটনায় ছাত্রীনিবাসে নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছেন ছাত্রীরা।

এরই প্রেক্ষিতে বুধবার সকালে ছাত্রীরা আইএইচটি অধ্যক্ষ বরাবর অভিযোগ দেন। এর আগে অধ্যক্ষের কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করেন ছাত্রীরা। পরে সেখান থেকে ফেরার পথে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ছাত্রীদের ওপর হামলা চালান। এ সময় সেখানে অধ্যক্ষ ছাড়াও বিপুল সংখ্যক পুলিশ সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

ছাত্রীদের অভিযোগ, স্লোগান দিয়ে ছাত্রীদের ওপর হামলা চালিয়েছে ছাত্রলীগ। এর আগে ক্যাম্পাসে তাদের শো-ডাউনে আতঙ্কিত হয়ে পড়ে ছাত্রীরা। পরে অধ্যক্ষ নিজেই ছাত্রীদের নিরাপদে ছাত্রীনিবাসে ঢুকিয়ে দিচ্ছিলেন। কিন্তু অধ্যক্ষের উপস্থিতিতেই ছাত্রীদের ওপরে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা হামলা চালান। এতে চারজন ছাত্রী আহত হয়েছেন। এ সময় উপস্থিত পুলিশের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন ছাত্রীরা।

তবে ছাত্রীদের ওপর হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ছাত্রলীগের আইএইচটি শাখার সভাপতি জাহিদুল ইসলাম। তিনি বলেন, তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে পড়ে গিয়ে কয়েকজন ছাত্রী সামান্য আহত হয়েছেন। তাদের চিকিৎসা প্রতিবেদন দেখলেই বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে।

আইএইচটির অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলাম বলেন, ছাত্রীদের ওপর ছাত্রলীগ হামলা চালায়নি। ছোট গেইট দিয়ে তাড়াহুড়ো করে ভেতরে ঢুকতে গিয়ে ছাত্রীরা পড়ে গিয়ে আহত হয়েছে। ছাত্রলীগ নেতাদের বিরুদ্ধে তোলা ছাত্রীদের অভিযোগ তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দেন অধ্যক্ষ।

আইএইচটি বন্ধের বিষয়ে অধ্যক্ষ বলেন, অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি এড়াতে আপাতত প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।



:        
   আপনার মতামত দিন
     বিশেষ সংবাদ
ইসলাম, নারী এবং অন্যান্য প্রসঙ্গ "গোলাম মাওলা রনি"
................................................................
নুহ নবীর নৌকার খোঁজে
................................................................
আল্লাহর গজব নাজিল হয় যে কারনে
................................................................
পর্যটক টানছে থাইল্যান্ডের মসজিদগুলো
................................................................
সন্তান-সন্তুতির প্রতি রাসূলুল্লাহ (সা.)-এর ভালোবাসা
................................................................